কালিহাতীতে গৃহবধূ ধর্ষণ মামলায় ইউপি চেয়ারম্যান গ্রেফতার

  


পিএনএস, কালিহাতী (টাঙ্গাইল): টাঙ্গাইলে কালিহাতী উপজেলার নাগবাড়ী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মাকছুদুর রহমান মিল্টন সিদ্দিকীকে গৃহবধূকে ধর্ষণ মামলায় গ্রেফতার করেছে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ ডিবি।

শনিবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে নাগবাড়ী এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। এর আগে গত ১৪ মার্চ দায়ের করা এই ধর্ষণ মামলায় তাকে গ্রেফতার করা হয়।

জেলা গোয়েন্দা পুলিশের অফিসার ইনচার্জ (ওসি) অশোক কুমার সিংহ জানান, গত ১৪ মার্চ কালিহাতী থানায় স্থানীয় এক গৃহবধূ মিল্টন সিদ্দিকীর বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগে মামলা দায়ের করেন। গত এপ্রিল মাসের শেষ দিকে মিল্টন সিদ্দিকী উচ্চ আদালত থেকে সেই মামলায় জামিনও পেয়েছিলেন। আদালত তাকে ৭ দিনের মধ্যে নিম্ন আদালতে হাজির হওয়ার নির্দেশ দিয়েছিলেন। কিন্তু তিনি হাজির হননি। ধর্ষণের ঘটনার পর গৃহবধূর ডাক্তারি পরীক্ষায় তেমন কোন আলামত পাওয়া যায়নি। তবে ধর্ষিতার জবানবন্দি অনুযায়ী তার পোষাক থেকে নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। সেখানে ধর্ষণের আলামত পাওয়া যাওয়ায় তার ডিএনএ পরীক্ষা শেষ হয়েছে।

তিনি আরোও জানান, আজ মিল্টন সিদ্দিকীকে আদালতে হাজির করা হবে। সেখানে আমরা ৫-৭ দিনের রিমান্ড ও ডিএনএ পরীক্ষার আবেদন করবো ।

উল্লেখ্য, গত ১৪ মার্চ নাগবাড়ী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মাকছুদুর রহমান মিল্টন সিদ্দিকী নির্যাতিতা ওই গৃহবধূকে ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের পাশে এলেঙ্গা রিসোর্টে নিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করেন। পরে নির্যাতিতাকে মহাসড়কের পাশে ফেলে রেখে মিল্টন সিদ্দিকী পালিয়ে যায়। সেখান থেকে ওই গৃহবধূর পরিবার তাকে উদ্ধার করে টাঙ্গাইল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে। সেদিন রাতেই নির্যাতিতা ওই গৃহবধূ বাদি হয়ে মিল্টন সিদ্দিকীসহ দুইজনকে আসামী করে কালিহাতী থানায় একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন। পরে মামলাটি জেলা গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)এর কাছে হস্তান্তর করা হয়।

পিএনএস/আনোয়ার

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech