মোরেলগঞ্জে একই পরিবারের ৩ জনকে কুপিয়েছে ছাত্রলীগ

  

পিএনএস ডেস্ক : বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে একটি সংখ্যালঘু পরিবারে হামলা করে শিশুসহ ৩ জনকে রক্তাক্ত জখম করেছে ছাত্রলীগের ক্যাডাররা। হামলায় আহত দিনমজুর রতন মন্ডল (৪০), তার স্ত্রী সুরুচি মন্ডল(৩৫) ও ছেলে ৬ষ্ঠ শ্রেণির ছাত্র বিশ্বজিত মন্ডলকে (১২) বাগেরহাট সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

স্থানীয় ইউপি সদস্য রতন দাস আহতদেরকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যান। আজ বেলা ১১টার দিকে হোগলাপাশা ইউনিয়নের ছোট হরিপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।
জানা গেছে, পার্শ্ববর্তী জয়পুর গ্রামের অধির মিস্ত্রীর ছেলে ছাত্রলীগ কর্মী অঞ্জন মিস্ত্রী ৪-৫ জনের একটি বাহিনী নিয়ে ধারালো অস্ত্র ও লাঠিসোটা নিয়ে রতন মন্ডলের বাড়িতে গিয়ে ওই পরিবারের সকলকে পিটিয়ে কুপিয়ে জখম করে।

থানার ওসি(তদন্ত) তারক বিশ্বাস বলেন, পরকীয়া প্রেমের জের ধরে রতন মন্ডলের পরিবারের ওপর হামলা হয়েছে বলে শুনেছি। কোন লিখিত অভিযোগ পাওয়া যায়নি।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে একজন ইউপি চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আ. লীগের নেতা বলেন, অঞ্জন মিস্ত্রী একজন বখাটে। সে ছাত্রলীগের সাইনবোর্ড ব্যবহার করে আওয়ামী লীগের ভোট নষ্ট করছে। তার বখাটেপনায় এলাকবাসী অস্থির।

এই ঘটনা সম্পর্কে বণগ্রাম ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক জয় বসু বলেন, আমি আহতদেরকে দেখেছি। ঘটনাটি খুবই দুঃখজনক। অঞ্জন মিস্ত্রী সম্পর্কে তিনি বলেন, সে ছাত্রলীগমনা। তবে দলে তার কোন পোষ্ট নেই। দলীয় নেতাকর্মীদের সাথে হাটাচলা করে।

পিএনএস/জে এ/ মোহন


 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech