কুমিল্লা ইপিজেডে শ্রমিক-পুলিশ সংঘর্ষ

  

পিএনএস : বেতন-ভাতার দাবিতে কুমিল্লা ইপিজেডে ওয়াসিস টেক্সটাইল নামে একটি জ্যাকেট কোম্পানির শ্রমিকদের সঙ্গে মালিক পক্ষ ও পুলিশের সংঘর্ষ হয়েছে। এ সময় পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে ১৮ রাউন্ড ফাঁকা রাবার বুলেট নিক্ষেপ করে।

বুধবার বিকেল ৫ টা থেকে শুরু করে সন্ধ্যা ৭ টা পর্যন্ত চলে এ সংঘর্ষ। এ ঘটনায় বিথী নামে এক নারী শ্রমিকসহ বেশ কয়েকজন আহত হয়েছে বলে জানা গেছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, ওয়াসিস টেক্সটাইল কোম্পানিতে এক হাজার দুই শত শ্রমিক কমর্রত রয়েছেন। তাদের মধ্যে বেশিরভাগ শ্রমিকের তিন মাসের আবার অনেকের এক মাসের বেতন-ভাতা বকেয়া রয়েছে। বকেয়া বেতন-ভাতার দাবিতে শ্রমিকরা বিকেলে আন্দোলন শুরু করলে প্রথমে কোম্পানির মালিকদের সাথে সংঘর্ষ হয়।

পরে ইপিজেড ফাঁড়ির পুলিশের সাথে শ্রমিকদের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া হয়। এ সময় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুুলিশ রাবার বুলেট ছুঁড়ে। এ সময় বেশ কয়েকজন শ্রমিক আহত হয়।

ওয়াসিস টেক্সাইলের শ্রমিকরা জানান, গত ঈদ-উল-আজহার সময় কোম্পানি শ্রমিকদের মাত্র ৩০ ভাগ বেতন দেয়। বাকি ৭০ ভাগ ঈদের পর পরই দেয়ার আশ্বাস দেয়া হয়েছিল। ২০ সেপ্টেম্বর বকেয়া বেতনভাতা দেয়ার কথা থাকলেও কর্তৃপক্ষ তা দেইনি। তারা উল্টো শ্রমিকদের উপর হামলা চালায়। পরে শ্রমিকরা বেপজা কর্তৃপক্ষের কাছে বিচার দিতে গেলে বেপজা কর্তৃপক্ষ মালিকের পক্ষ নিয়ে আনসার দিয়ে শ্রমিকদের উপর হামলা চালায়।

স্থানীয়রা জানায়, শ্রমিকরা বেপরোয়া হয়ে এক পর্যায়ে ইপিজেড এর প্রধান গেইটটি ভাংচুর করে। এসময় পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে শ্রমিকদের উপর লাঠিচার্জ করে ও ফাঁকা গুলি ছুড়ে।কুমিল্লা ইপিজেড পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ আজিজুর রহমান জানান, শ্রমিকরা অফিসে হামলা করতে গেলে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশ ফাঁকা রাবার বুলেট ছোড়ে।

পিএনএস/মোঃ শ্যামল ইসলাম রাসেল

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech