রামপালে ভূমিহীনরা ফিরে পেলেন পাওনা টাকা

  

পিএনএস, স্টাফ রিপোর্টার (বাগেরহাট) : রামপালে ভূমিহীনদের মাঝে সরকারি খাস জমি বন্দোবস্ত প্রদানের কথা বলে দুই প্রতারক ৩ লক্ষ ৯২ হাজার টাকা আত্মসাতের ঘটনায় হতদরিদ্র ভূমিহীনরা ফিরে পেলেন টাকা। ৩ মাস পূর্বে পেড়িখালী ইউনিয়নের পেড়িখালী, পুটিমারী, জিগিরমোল্লা, সাতপুকুরিয়া, আড়–য়াডাঙ্গা ও রোমজাইপুর গ্রামের ৩৬ জন বাসিন্ধার আবেদনের প্রেক্ষিতে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নির্দেশে অবশেষে ২ প্রতারক এ টাকা পরিশোধ করে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার অফিস ও অভিযোগকারীর অভিযোগ থেকে জানা গেছে, পেড়িখালী ইউনিয়নের ৪ নং ওয়ার্ডের সদস্য নিখিল চন্দ্র মন্ডল ও সাতপুকুরিয়া গ্রামের শাহাদাত হোসেন মাঝি ওরফে খোকন মাঝি ভূমিহীনদের মাঝে খাজ জমির কথা বলে ১০/১২ বছর পূর্বে ভূমিহীন পুরুষ ও মহিলা মিলে প্রায় শতাধীক লোকের কাছ থেকে লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নেয়। ভূমিহীনরা টাকা চাইলে তাদের বিভিন্নভাবে ভয়ভীতি প্রদান করতে থাকে।

এরপর ভূমিহীনরা সংগঠিত হয়ে পাওনা টাকা আদায়ের জন্য উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তুষার কুমার পালের বরাবর অভিযোগ করলে তিনি উভয় পক্ষের শোনানী শেষে টাকা ফিরিয়ে দেওয়ার নির্দেশ প্রদান করেন। ভূমিহীনদের পাওনা টাকা ফেরত দেওয়ার সময় উপস্থিত ছিলেন, রামপাল উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যন শেখ মোয়াজ্জেম হোসেন, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান হোসনে আরা মিলি, ইউপি সদস্য আলমগীর হোসেন, নাসর আহম্মেদ বাবুল, আনিস মাঝি প্রমুখ।

পিএনএস/মোঃ শ্যামল ইসলাম রাসেল

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech