বিষ দিয়ে ৪০ লাখ টাকার মাছ মেরে ফেলায় মামলা

  

পিএনএস ডেস্ক: নেত্রকোণার পূর্বধলা উপজেলায় বিষ দিয়ে প্রায় ৪০ লাখ টাকার মাছ মেরে ফেলার চার দিনের মাথায় মামলা হয়েছে। শুক্রবার পূর্বধলা থানায় এই মামলাটি করা হয়।

পূর্বধলা থানার পরিদর্শক অভি রঞ্জন সরকার জানান, উপজেলার বৈরাটি ইউনিয়নের আলমপুর গ্রামের মিলি মৎস্য খামারের মালিক মোখলেছুর রহমান সুজন মামলাটি করেছেন।

তিনি জানান, খবর পেয়ে ঘটনার পরদিন বুধবার সকালে খামারে পুলিশ পাঠানো হয়। পুলিশ পুকুর পাড় থেকে তিনটি বিষের বোতল জব্দ করে।

পূর্বশত্রুতার জেরে বাদী সুজনের প্রতিবেশী রোস্তম আলীসহ অজ্ঞাত আরো পাঁচজনে এই ঘটনা ঘটিয়েছে বলে উল্লেখ করা হয়েছে মামলায়। তদন্ত শুরু হয়েছে জানিয়ে পরিদর্শক বলেন, ঘটনার পর থেকে রোস্তম আলী পালিয়ে আছেন। তবে তাকে ধরতে অভিযান চলছে।

সুজন অভিযোগ করে জানান, তিনি এবং তার ভাই মিজানুর রহমান কাজলের যৌথভাবে পাঁচ একর জমিতে করা খামারের ছয়টি পুকুর রয়েছে। এই পুকুরগুলোতে পাবদা, গুলশা, শিং মাছের পোনা ছাড়া হয় মাস সাতেক আগে। পোনা কেনা, খাবার, পরিচর্যা বাবদ এ নাগাদ সাড়ে ১৩ লাখ টাকার ওপরে খরচ হয়েছে। বর্তমান বাজার দরে পুকুরগুলোতে অন্তত ৪০ লাখ টাকার মাছ ছিল।

মঙ্গলবার রাত ৯টার দিকে সবগুলো পুকুরে একসাথে বিষ ঢেলে সব মাছ মেরে ফেলে প্রতিবেশী রোস্তম আলী। এর আগেও মাছের এই খামারে বিষ দিয়ে মাছ মেরে ফেলার ঘটনা হয়েছে। ২০১০ সালে শত্রুতা করে রোস্তম আলী ভিয়েতনামের এক লাখ ৩৮ হাজার কই মাছ বিষ ঢেলে মেরে ফেলেছিল। সে সময় এলাকার মানুষ সালিশ করে নিস্পত্তি করে দিয়েছিলেন।এবার আবারো এই ঘটনা ঘটানোয় এলাকার মানুষেরা আইনগত ব্যবস্থা নিতে বলায় থানায় মামলা করেছি।

রোস্তম আলী পলাতক থাকায় তার বক্তব্য নেয়া সম্ভব হয়নি।

পিএনএস/হাফিজুল ইসলাম

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech