যশোরে হাসপাতালে বোমা বিস্ফোরণ

  

পিএনএস ডেস্ক : যশোর জেনারেল হাসপাতালে ওয়ার্ডের মধ্যে প্রতিপক্ষ রোগীর স্বজনের ওপর হামলা ও বোমা বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। শনিবার সন্ধ্যার দিকে হাসপাতালের দ্বিতীয় তলায় তত্ত্বাবধায়কের কার্যালয়ের সামনে হামলার এ ঘটনায় বাবু (৩০) নামে একজন রক্তাক্ত জখম হয়েছেন।

জানা গেছে, শনিবার বিকাল ৪টার দিকে শহরের চাঁচড়া রায়পাড়া কয়লাপট্টি এলাকায় আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে আল আমিন ও সজল গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। এতে সজল ও তার মা জাহেদা বেগম এবং প্রতিপক্ষের আল আমিন আহত হন।

আহতদের সন্ধ্যার দিকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এর পরই হাসপাতালের জরুরি বিভাগে আল আমিনের স্বজন বাবুকে একা পেয়ে ধাওয়া করে প্রতিপক্ষ সজলের লোকজন। এ সময় হাসপাতালের দ্বিতীয় তলায় মহিলা ওয়ার্ডে রোগীর বেডের নিচে গিয়ে পালায় বাবু। সেখানেই মারপিট করা হয় তাকে। এর পর হামলাকারীরা দ্বিতীয় তলায় তত্ত্বাবধায়কের কার্যালয়ের সামনে একটি বোমা বিস্ফোরণ ঘটিয়ে স্থান ত্যাগ করে।

মহিলা ওয়ার্ডের সিনিয়র স্টাফ নার্স তৃপ্তি লতা গো স্বামী জানান, ৪-৫ জন যুবক বাবু নামে একজনকে ধাওয়া করলে তিনি এ ওয়ার্ডের রোগীর বেডের নিচে লুকানোর চেষ্টা করে। কিন্তু রোগীর বেডের নিচেই তার ওপর হামলা করে ওই যুবকরা। এ সময় রোগী, স্বজন ও নার্সদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে।

তিনি আরও বলেন, ওয়ার্ডে রোগীর বেডের নিচে হামলা নজিরবিহীন। এভাবে দায়িত্ব পালন করা নার্সদের জন্য কঠিন।

যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক একেএম কামরুল ইসলাম বেনু বলেন, রোগীর স্বজনদের মধ্যে মারামারির ঘটনা ঘটেছে। একপক্ষ দ্বিতীয় তলায় বোমা বিস্ফোরণ করেছে। ঘটনাস্থলে পুলিশ রয়েছে। নিরাপত্তা নিয়ে কোনো সমস্যা নেই।

যশোর কোতোয়ালি থানা পুলিশের ওসি একেএম আজমল হুদা জানান, হাসপাতালের মধ্যে দুই গ্রুপ মারামারি করেছে এবং একটি ককটেল বিস্ফোরণ ঘটিয়েছে। পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এনেছে।

পিএনএস/জে এ /মোহন

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech