পরীক্ষার হলে ছাত্রীর শ্লীলতাহানির দায়ে শিক্ষকের দণ্ড

  

পিএনএস ডেস্ক : প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষায় কেন্দ্রের এক ছাত্রীকে শ্লীলতাহানির অভিযোগে নোয়াখালীর সেনবাগ উপজেলায় মোঃ ইব্রাহিম নামে এক শিক্ষকের ১ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। মঙ্গলবার বিকেলে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালত এ আদেশ দেন।

পরে সেনবাগ থানার মাধ্যমে ওই শিক্ষককে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়।

অভিযুক্ত শিক্ষক উপজেলার কাদরা ইউপির চাঁদপুর খলিফা পাড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রাক-প্রাথমিক শিক্ষক।

সে উপজেলার ডমুরুয়া ইউনিয়নের নলুয়া গ্রামের আবদুর রবের পুত্র।

জানা যায়, মঙ্গলবার পিএসসি পরীক্ষায় বাংলাদেশ ও বিশ্ব পরিচয় বিষয়ের পরীক্ষা চলাকালে উপজেলার গাজীরহাট কেন্দ্রের গাজীরহাট সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ২নং হলে পরিকোট সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের এক ছাত্রী হলে দায়িত্বরত শিক্ষক ইব্রাহিমের কাছে একটি প্রশ্নের উত্তর জানতে চায়।

শিক্ষক ছাত্রীর সেই দুর্বলতার সুযোগ নিয়ে তার কাছে গিয়ে শরীরের স্পর্শকাতর স্থানে হাত দিয়ে শ্লীলতাহানি করে। সাথে সাথে হলের সকল শিক্ষার্থী এ ঘটনার প্রতিবাদ করে। এছাড়া ওই ছাত্রী নিজে এসে অন্য শিক্ষকদের জানায়। বিকেলে অভিযুক্ত শিক্ষক ইব্রাহিমকে জিজ্ঞাসাবাদ করে ওই ছাত্রীকে শ্লীলতাহানির অভিযোগ প্রমাণিত হয়।

এ সময় নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার শারমিন আলম অভিযুক্ত শিক্ষক মোঃ ইব্রাহিমকে ১ বছরের বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করে।

পরে তাকে সেনবাগ থানার মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়।

পিএনএস: জে এ মোহন

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech