ডুবে যাওয়ার ৬ দিন পর শুরু হলো কার্গো উদ্ধারের কাজ

  


পিএনএস, বাগেরহাট: ডুবে যাওয়ার ছয় দিন পর অবশেষে শুরু হয়েছে মোংলা বন্দরের হাড়বাড়িয়ায় ডুবে যাওয়া কয়লা বোঝাই কার্গো জাহাজের উদ্ধার কাজ।

এর আগে রবিবার (১৫ এপ্রিল) রাত ৩টার দিকে হারবাড়িয়া এলাকায় ৭শ ৭৫ মেট্রিক টন কয়লা নিয়ে এমভি বিলাস নামে একটি কার্গো জাহাজ ডুবে যায়।

শনিবার (২১ এপ্রিল) ভোর থেকে উদ্ধার তৎপরতা শুরু হলেও প্রচণ্ড স্রোত এবং ঢেউয়ের কারণে তা বাধাগ্রস্থ হচ্ছে। ফলে থেমে থেমে চলছে কয়লা উত্তোলণের কাজ।

এর আগে শুক্রবার বিকেলে উদ্ধার কাজের চেষ্টা চালালেও পানির প্রচণ্ড টান থাকায় ডুবন্ত জাহাজের কাছাকাছি অবস্থান নিতে না পারায় কার্যক্রম বন্ধ রাখা হয়।

উদ্ধার কাজে নিয়োজিত হোসেন স্যালভেজের মালিক মো. সোহরাব মোল্লা জানান, চলতি পূর্ণিমার ভরা গোনের কারণে নদীতে প্রচণ্ড ঢেউ ও স্রোত থাকায় উদ্ধার কাজ ব্যাহত হচ্ছে। ভরা গোনে পানি বেশি হওয়ায় জাহাজটি ভাটার সময়ও দেখা যাচ্ছে না, সার্বক্ষণিক ডুবে থাকছে। তাই দুই-একদিন পর গোন শেষ হলে পানির স্রোত ও ঢেউ কমে আসবে এবং ভাটায় জাহাজটি দেখা যাবে তখন কাজ করলে দ্রুত সময়ের মধ্যে কয়লা উত্তোলনসহ জাহাজ উদ্ধার করা সম্ভব হবে। তখন নিয়মিত কাজ করতে পারলে ৮/১০ দিনের মধ্যে সমুদয় কয়লা উত্তোলন করা সম্ভব হবে।

বনবিভাগের চাদপাই রেঞ্জ কর্মকর্তা মো. শাহীন কবির জানান, শুক্রবার বিকেলে চেষ্টা করেও উদ্ধার কাজ শুরু করতে পারেনি। তবে শনিবার ভোর থেকে ডুবুরিরা ড্রেজারের মাধ্যমে কয়লা উত্তোলন শুরু করেছে। নদী উত্তাল ও স্রোতের কারণে প্রচণ্ড টান থাকায় উদ্ধারে বিলম্ব ও ব্যাহত হচ্ছে।

পিএনএস/আনোয়ার

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech