চিরিরবন্দরে ভুল চিকিৎসার অভিযোগ প্রসূতি মহিলার মৃত্যু - মফস্বল - Premier News Syndicate Limited (PNS)

চিরিরবন্দরে ভুল চিকিৎসার অভিযোগ প্রসূতি মহিলার মৃত্যু

  

পিএনএস, চিরিরবন্দর (দিনাজপুর) প্রতিনিধি : দিনাজপুরের চিরিরবন্দর উপজেলার সাইতাড়া ইউনিয়নের রাবার ড্রাম জগনাথপুর ইয়াকুব আলীর স্ত্রীর ভুল চিকিৎসায় প্রসূতি মহিলার প্রাণ।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, দিনাজপুরে আল মদিনা নাসিং হোমে ভুল চিকিৎসার অভিযোগে প্রসূতি মহিলা হোসনে আরা বেগম (২৭) নামে এক মহিলার মৃত্যু হয়েছে। আল মদিনা নাসিং হোমের কর্তৃপক্ষ প্রসুতির মৃত্যু হওয়ার খবর ছড়িয়ে পড়লে নাসিং হোম বন্ধ করে পালিয়ে যায়। গত ১২জুন বুধবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে প্রসুতি মহিলার মৃত্যু হয়েছে। প্রসুতি হোসনে আরা বেগম দিনাপুর জেলার চিররবন্দর উপজেলার সাইতাড়া ইউনিয়নের রাবার ড্রাম জগনাথপুর ইয়াকুব আলীর স্ত্রী।

প্রসুতির ভাই সাদেক জানায়, গতকাল মঙ্গলবার আমার বড় বোন হোসনে আরা বেগমকে দিনাপুর শহরের বালুবাড়ি জোড়াব্রীজ সংলগ্ন আল মদিনা নাসিং হোম এর ভর্তি করা হয়। সন্ধা সাড়ে ৭টার দিকে আল মদিনা নাসিং হোম প্রধান ডাক্টার খাদিজা নাহিদ ইভা সন্তান ডেরিভারি করার জন্য অপারেশন থিয়েটারে নিয়ে যায়। রাত সাড়ে ৯টার সময় রোগীকে অতিরিক্ত রক্তক্ষরণের জন্য দিনাজপুর এম, আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। অবস্থা বেগতিক দেখে আল মদিনা নাসিং হোমের কর্তৃপক্ষ প্রসুতিকে আইসিইউতে রাখে, পরে সকাল সাড়ে ৯টার দিকে মৃত্যু ঘোষনা করেন মেডিকেল ডাক্টার কর্তৃপক্ষ। প্রসুতির খবর ছড়িলে পড়লে রোগীর আত্মীয় স্বজনরা আল মদিনা নাসিং হোম ক্লিনিকের সামনে লাশ নিয়ে এসে বিক্ষোভ শুরু করে। পরে আল মদিনা নাসিং হোম কর্তৃপক্ষ ভিতর থেকে প্রধান ফটকে তালা ঝুরিয়ে দিয়ে সেখান থেকে পালিয়ে যায়। ফলে নাসিং হোম কর্তৃপক্ষের কারো সঙ্গে কথা বলা সম্ভব হয়নি।

দিনাজপুর কোতয়ালী থানার এসআই আবু বক্কও সিদ্দিক জানায়, আল মদিনা নাসিং হোম ভিতর থেকে তালা বন্ধ করে কর্তৃপক্ষ পালিয়ে যায়। রোগীর পক্ষ থেকে লিখিত অভিযোগ দায়ের করলে পুলিশ বিষয়টি খতিয়ে দেখে ব্যবস্থ্য গ্রহণ করবে। বর্তমানে নাসিং হোমের বাহিরে গন্ডগোল হলেও নাসিং হোমের কোন ক্ষতি করতে কেউ যাতে না পারে সেই জন্যই অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

পিএনএস/মোঃ শ্যামল ইসলাম রাসেল


 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech