চাঁদপুরে সরগরম হচ্ছে ইলিশের আড়ৎগুলো

  

পিএনএস ডেস্ক : পুরোপুরি মৌসুম শুরু না হলেও চাঁদপুরের মোকামে ইলিশের চালান আসতে শুরু করেছে। এতে সরগরম হতে শুরু করেছে জেলার সবচেয়ে ব্যস্ত মাছের আড়ৎ বড় ষ্টেশন। স্থানীয় পদ্মা-মেঘনার চেয়ে দক্ষিণের সাগর মোহনার ইলিশই আমদানি হচ্ছে।

তবে জাটকা রক্ষায় দীর্ঘ দুই মাস অপেক্ষা এবং আরো দেড় মাস পর যে পরিমাণ ইলিশ আমদানি হচ্ছে, চাহিদার তুলনায় তা কম। মৎস্যবিজ্ঞানিরা আশা করছেন, নানা প্রতিবন্ধকতার কারণে এখন কম হলেও কিছুদিন পর কাঙ্ক্ষিত ইলিশ ধরা পড়বে।

চাঁদপুরে মাছের প্রধান আড়তগুলোতে কর্মচাঞ্চল্য বলে দিচ্ছে ইলিশের আমদানি শুরু হয়েছে। শহরের বড়ষ্টেশনের মোকামটিতে গত কয়েকদিন ধরে নানা আকারের ইলিশ আমদানি হচ্ছে। দক্ষিণের সাগর মোহনায় ধরা পড়া ইলিশ এই আড়তের প্রাণ।

তবে চাঁদপুরের পদ্মা-মেঘনায় এখনও ব্যাপক হারে ইলিশের বিচরণ শুরু হয়নি। ফলে তেমন ধরা পড়ছে না। ইলিশের সরবরাহে স্বস্তি ফিরলেও পুরো মৌসুমের অপেক্ষায় আছেন, ব্যবসায়ীরা।

ব্যবসায়ীরা বলেন, 'সরকার ইলিশ রক্ষায় যে পদক্ষেপ নিয়েছে তাতে করে চাঁদপুরের মাছ অনেক বড় হয়েছে।

তবে যে পরিমাণ ইলিশের আমদানি তা স্থানীয় বাজারের চাহিদা মিটছে না না বলে জানালেন চাঁদপুর মৎস্য বণিক সমবায় সমিতি সভাপতি আব্দুল খালেক মাল।

অন্যদিকে, পর্যাপ্ত মাছের জন্য আরেকটু অপেক্ষার কথা জানালেন, চাঁদপুর নদীকেন্দ্র মৎস্য গবেষণা ইনস্টিটিউটের প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. মো. আনিছুর রহমান।

চাঁদপুরে প্রধান মোকামটিতে ভরা মৌসুমে প্রতিদিন গড়ে তিনহাজার মণ ইলিশের আমদানি হলেও এখন তার পরিমাণ মাত্র ৫০-৬০ মণ

পিএনএস/জে এ /

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech