নবাবগঞ্জে বিস্ময়কর আজিজুলের হতবাক করা যত খেলা - মফস্বল - Premier News Syndicate Limited (PNS)

নবাবগঞ্জে বিস্ময়কর আজিজুলের হতবাক করা যত খেলা

  

পিএনএস, নবাবগঞ্জ (দিনাজপুর) প্রতিনিধি : দিনাজপুরের নবাবগঞ্জ উপজেলার ভাদুরিয়া ইউনিয়নের একটি গ্রামের নাম টাকামতি। সেই গ্রামের মৃত তারা মিয়ার ছেলে আজিজুল ইসলাম(৩৫)। তার মাতার নাম মৃত আয়েশা খাতুন। পিতা-মাতা হারা আজিজুল হকের হতবাক করা কিছু খেলা মানুষের মাঝে বিষ্ময়কর হয়ে উঠেছে। এসব খেলার কারনে ইতিমধ্যে সে বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেকট্রিক মডিয়ার নজরে পড়েছে। তার ওই সব খেলা মানুষকে অবাক করে দিয়েছে।

আজিজুল জানায় ১২ বছর বয়স থেকে তার খেলার যাত্রা শুরু হয়।এরপর সে নিজের চেষ্টায় আস্তে আস্তে এখন কান দিয়ে কার মাইক্রোবাস টানতে পারে , পারে ৯০ কেজি ওজন ভারত্তোলন করতে, কান দিয়েই স্বাভাবিক ভাবে টানতে পারেজমিতে লাঙ্গল। চোখ দিয়ে লিখতে পারে। পারে চোখ দিয়েই ৪সুত রড বাঁকা করতে। চোখ দিয়েই আরও পারে ৫০ কেজি ওজন ভারত্তোলন করতে।তার বুকের উপর দিয়ে চলে যেতে পারে মাইক্রোবাস ও মটর সাইকেল। এমনি পারে চুল দিয়েও। মাধ্যমিক পর্যায়ে লেখাপড়া আজিজুল দরিদ্র পরিবারের ছেলে। সে অবিবাহিত। ২ বোন রয়েছে তাদের বিয়ে হয়ে গেছে। আজিজুল এসব খেলা বিনোদন কেন্দ্র গুলোতে মৌসুম এলে দেখিয়ে থাকে। এজন্য তার হিরামতি বাংলার বাঘ নামে একটি সার্কাস রয়েছে। সার্কাসে তার নিজের তৈরী পোষাক ও যন্ত্রপাতি দিয়ে ওই সার্কাস বসিয়ে এক সময় নবাবগঞ্জ উপজেলার স্বপ্নপুরিতে খেলা দেখাত।

এখন সে রংপুরের পীরগঞ্জ উপজেলার আনন্দ নগর বিনোদন কেন্দ্রে ওই সার্কাস বসায়। আজিজুল জানায় তার খেলা মানুষ দেখে ও প্রশংসা করে। এনিয়ে বেশ লেখালেখিও হয়েছে। তার ইচ্ছা ভবিষ্যতে আরও নতুন নতুন খেলা সৃষ্টি করা।

পিএনএস/মোঃ শ্যামল ইসলাম রাসেল

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech