চট্টগ্রামে ৪ চিকিৎসকের বিরুদ্ধে মামলা করছেন রাইফার বাবা

  

পিএনএস ডেস্ক : ভুল চিকিৎসা ও অবহেলায় শিশু রাফিদা খান রাইফার মৃত্যুর অভিযোগে চট্টগ্রাম নগরীর ম্যাক্স হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও তিন চিকিৎসকের বিরুদ্ধে থানায় মামলার এজাহার জমা দেওয়া হয়েছে। বুধবার দুপুরে রাইফার বাবা সাংবাদিক রুবেল খান নগরীর চকবাজার থানায় এই এজাহার জমা দিয়েছেন। তবে এজাহার জমা দেওয়া হলেও সেটি মামলা হিসেবে রেকর্ড করা হয়নি বলে জানিয়েছেন চকবাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল কালাম।

ওসি বলেন, ‘মামলার এজাহার পেয়েছি। উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

যাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা হয়েছে তারা হলেন, শিশু বিশেষজ্ঞ ডা.বিধান রায় চৌধুরী, ম্যাক্স হাসপাতালের চিকিৎসক দেবাশীষ সেনগুপ্ত ও শুভ্র দেব এবং ব্যবস্থাপনা পরিচালক ডা.লিয়াকত আলী।

এজাহারে বাদি অভিযোগ করেন, ‘রোগী ব্যবস্থাপনায় অসম্ভব গাফিলতি, অদক্ষতা, অলসতা ও আন্তরিকতায় মারাত্মক অবহেলা করে চার আসামি আমার শিশুকন্যার মৃত্যু ঘটায়। আসামিরা দায়িত্ব-কর্তব্যের মারাত্মক অবহেলা ও গাফিলতি প্রদর্শনপূর্বক সঠিক রোগ নির্ণয় না করে এবং সঠিক ওষুধ প্রয়োগ না করে ক্ষতিকর অ্যান্টিবায়োটিক ও সেডিল প্রয়োগ করে আমার শিশুকন্যাকে মৃত্যুর দিকে ঠেলে দেয়।’

সাংবাদিক রুবেল খানের সঙ্গে চকবাজার থানায় যান চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের সভাপতি কলিম সরওয়ার, চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি নাজিমউদ্দিন শ্যামল ও সাধারণ সম্পাদক হাসান ফেরদৌস, বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের সহ-সভাপতি রিয়াজ হায়দার চৌধুরী ও যুগ্ম মহাসচিব মহসিন কাজীসহ সাংবাদিক নেতারা।

গত ২৯ জুন চট্টগ্রাম নগরীর মেহেদিবাগে ম্যাক্স হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায় রাইফা। সামান্য গলাব্যাথা নিয়ে আগের দিন তাকে ওই হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল। তার বাবা দৈনিক সমকালের জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক রুবেল খান অভিযোগ করেছিলেন যে ভুল চিকিৎসা ও চিকিৎসকদের অবহেলায় রাইফার মৃত্যু হয়েছে। এরপর পৃথক দুই দফা তদন্তে চিকিৎসকদের অবহেলার বিষয়টি উঠে আসে।

এই ঘটনা নিয়ে গত ২০ দিন ধরে টানা আন্দোলনের মধ্যে চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়নের সিদ্ধান্তে মামলা দায়েরের উদ্যোগ নিলেন রুবেল খান।

পিএনএস/জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech