ট্রেনের নিচে মাথা দিয়ে কলেজছাত্রের আত্মহত্যা

  

পিএনএস ডেস্ক : কোটচাঁদপুরে ট্রেন স্টেশনে রাজশাহী শহীদ কামরুজ্জামান ডিগ্রি কলেজের ছাত্র খোন্দকার সৈকত আলম (১৮) ট্রেনে কাটা পড়ে মারা গেছে।

তিনি মাগুরা জেলার শালিখা উপজেলার পুলুম গ্রামের খোন্দকার আশরাফ আলীর একমাত্র ছেলে।

কোটচাঁদপুর রেলস্টেশনের সহকারী স্টেশন মাস্টার নূরুল ইসলাম জানান, ঢাকা থেকে খুলনাগামী চিত্রা এক্সপ্রেস বুধবার দিবাগত রাত দুইটা ৪০ মিনিটের দিকে কোটচাঁদপুর স্টেশনে থামে। ট্রেনটি ছেড়ে যাওয়ার পর দেখা যায় রেল অফিসের সামনে লাইনের ওপর লাশটি শরীর থেকে মাথা বিচ্ছিন্ন অবস্থায় পড়ে আছে। পরে পকেটে থাকা আইডি কার্ড ও মোবাইল নম্বর থেকে যোগাযোগ করে তার পরিচয় শনাক্ত করা হয়।

নিহতের পরিবার সূত্রে জানা গেছে, সৈকত আলম রাজশাহীতে বোনের বাসায় থেকে লেখাপড়া করতো। বুধবার সকালে লেখাপড়া নিয়ে বোন-দুলাভাই সৈকতকে বকাঝকা করলে সে কাউকে না জানিয়ে বিকেলে বাসা থেকে বেরিয়ে মাগুরার উদ্দেশ্যে রওনা হয়। তাদের ধারণা, কোটচাঁদপুর রেলস্টেশনে নেমে সে ট্রেনের নিচে মাথা দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। বৃহস্পতিবার সকালে রেলপুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য যশোর জেনারেল হাসপাতাল মর্গে নিয়ে গেছে।

পিএনএস/জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech