রাজবাড়ীতে শাশুড়িকে গলা কেটে হত্যা, আহত পুত্রবধূ আটক

  


পিএনএস, রাজবাড়ী: রাজবাড়ী জেলা সদরের আলীপুর ইউনিয়নে ঘুমন্ত অবস্থায় হাজেরা বেগমকে (৫০) গলা কেটে হত্যা ও পুত্রবধূ স্বপ্না বেগমকে (২৩) কুপিয়ে জখম করেছে দুর্বৃত্তরা।

বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত ১২টার দিকে আলীপুর ইউনিয়নের পশ্চিম বারবাকপুর গ্রামের ২নং ওয়ার্ডে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত শাশুড়ি হাজেরা বেগম ঐ গ্রামের কৃষক তমিজ উদ্দিন সেখের স্ত্রী। আহত পুত্রবধূ স্বপ্না হাজেরা বেগমের ছেলে মালয়েশিয়া প্রবাসী হাফিজুল সেখের স্ত্রী।

নিহত হাজেরা বেগমের স্বামী তমিজ উদ্দিন বলেন, ‘বৃহস্পতিবার রাত ১০টার দিকে রাতের খাবার ও টেলিভিশন দেখার পর হাজেরা বেগম পুত্রবধূ স্বপ্নার সাথে এক ঘরে ঘুমাতে যায়। রাত ১২টার দিকে স্বপ্নার চিৎকারে এগিয়ে গেলে দেখা যায় বিছানার উপরে হাজেরার গলাকাটা লাশ ও স্বপ্নার দুই হাতে জখম। পরে স্থানীয়রা পুলিশে খবর দেয়। কেন এমন ঘটনা ঘটলো সে বিষয়ে কিছুই বুঝতে পারছি না। তবে পুত্রবধূ ঘটনার সময় পাশেই ছিল। সে বলছে কিছুই জানে না। পুলিশ তাকে থানায় নিয়ে গেছে।’

রাজবাড়ী সদর থানার এসআই এনসের জানান, খবর পেয়ে লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহতের সুরতহাল রিপোর্ট শেষে ময়না তদন্তের জন্য জেলা সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হবে। ঘটনার প্রকৃত কারণ অনুসন্ধান ও দোষীদের শনাক্ত করে গ্রেফতারে মাঠে নেমেছে পুলিশ।

উল্লেখ্য, গত ১৫ দিনে রাজবাড়ী সদর উপজেলার আলিপুর, বানীবহ ও মুলঘর ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামে শিশুসহ চার মহিলাকে গলা কেটে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা।

পুলিশ এসব হত্যাকান্ডের মূল রহস্য উদঘাটন ও কোনো ঘাতককে এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত গ্রেফতার করতে পারেনি।

পিএনএস/আনোয়ার

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech