চিড়িয়াখানার খাঁচায় বন্দি থাকা সেই কুকুরটি মারা গেছে

  



পিএনএস ডেস্ক: ইংরেজি মাধ্যমের শিক্ষার্থী হিমু হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত জার্মানির ‘রট-ওয়েলার’ জাতের হিংস্র কুকুরটি সোমবার (২০ আগস্ট) সকাল ৮টায় চট্টগ্রাম চিড়িয়াখানায় মারা গেছে। কুকুরটি প্রায় ছয় বছর চট্টগ্রাম চিড়িয়াখানার খাঁচায় বন্দি ছিল।

চট্টগ্রাম চিড়িয়াখানার ভেটেরিনারি সার্জন ডা. মো. শাহাদাত হোসেন শুভ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, বার্ধক্যজনিত কারণে কুকুরটি মারা গেছে। গতকাল রাতেও তার শরীর ভালো ছিল।

ডা. শুভ আরও বলেন, হিমু হত্যা মামলার ‘আসামি’ কুকুরটি প্রায় ছয় বছর চট্টগ্রাম চিড়িয়াখানায় বেঁচে ছিল। সাধারণত কুকুর ১০ বছর বাঁচে। ময়নাতদন্ত করে দেখা গেছে হার্ট অ্যাটাকে কুকুরটি মারা গেছে।

মাদক ব্যবসা ও সেবনের প্রতিবাদ করায় নগরীর পাঁচলাইশ আবাসিক এলাকার ১ নম্বর সড়কের ‘ফরহাদ ম্যানশন’ নামের ১০১ নম্বর বাড়ির চারতলায় হিমুকে হিংস্র কুকুর লেলিয়ে দিয়ে নিমর্মভাবে নির্যাতন করে সেখান থেকে ফেলে দেয় অভিজাত পরিবারের কয়েকজন বখাটে।

গুরুতর আহত হিমু ২৬ দিন মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ে ২৩ মে ঢাকার একটি হাসপাতালে মারা যান। হিমু নগরের ইংরেজি মাধ্যমের সামারফিল্ড স্কুল অ্যান্ড কলেজের ‘এ’ লেভেলের শিক্ষার্থী ছিল।

পিএনএস/হাফিজুল ইসলাম

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech