মেয়েকে বিষ খাইয়ে হত্যার পর মায়ের আত্মহত্যা

  

পিএনএস, ময়মনসিংহ প্রতিনিধি : ময়মনসিংহের ভালুকায় চার মাস বয়সী শিশুকন্যাকে বিষ খাইয়ে হত্যার পর মায়ের আত্মহত্যার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় নিহতের স্বামীসহ দু'জনের বিরুদ্ধে ভালুকা মডেল থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৩ সেপ্টেম্বর) মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ ময়নাতদন্তের জন্য মমেক হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করেছে।তার আগে বুধবার দিনগত রাত ১টার দিকে ভালুকা উপজেলার জামিরদিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত নাজমা আক্তার (২১) ওই গ্রামের সাইফুল ইসলামের স্ত্রী ও তার শিশু কন্যা সাদিয়া।

পুলিশ ও নিহতের পরিবার সূত্রে জানা যায়, উপজেলার জামিরদিয়া গ্রামের নয়ানিপাড়ার নুরুল ইসলামের ছেলে ছাইফুল ইসলামের (৩৫) সাথে চার বছর আগে পাশের বড় কাশর গ্রামর নুহু মিয়ার মেয়ে নাজমা আক্তার ময়নার বিয়ে হয়। ছাইফুল ইসলাম বেকার থাকায় সংসারে অভাব অনটন প্রায়ই লেগে থাকত। এ নিয়ে বিয়ের পর থেকেই বিভিন্ন বিষয় নিয়ে তাদের মধ্যে পারিবারিক কলহ চলে আসছিল। ইতোমধ্যে তাদের সংসারে দু’টি কন্যা সন্তানের জন্ম হয়।

চার মাস আগে দ্বিতীয় মেয়ে সাদিয়ার জন্ম হওয়ার পর তাদের সংসারে অশান্তি আরো বাড়তে থাকে। বুধবার রাতে স্বামী-স্ত্রীর মাঝে কলহ হলে এক পর্যায়ে স্ত্রী নাজমা আক্তার তার শিশুকন্যা সাদিয়াকে বিষ খাইয়ে নিজে বিষ পান করে আত্মহত্যার চেষ্টা চালায়। পরে খোঁজ পেয়ে পরিবারের লোকজন রাতেই আশঙ্কাজনক অবস্থায় শিশু ও তার মাকে ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাদের দু'জনকেই মৃত ঘোষণা করেন।

এদিকে এ ঘটনার পর নিহতের বাবা নুহু মিয়া বাদি হয়ে মেয়ে জামাতা ছাইফুল ইসলাম ও আব্দুল মজিদ নামে দু'জনকে আসামী করে ভালুকা মডেল থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

ভালুকা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) ফিরোজ তালুকদার জানান, ঘটনার পর থেকে সাইফুল ইসলাম পলাতক রয়েছেন। লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মমেক হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে। এ ঘটনায় ভালুকা মডেল থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে। নিহত নাজমার সায়েমা আক্তার নামে ৪বছর বয়সের একটি মেয়ে রয়েছে।

পিএনএস/মোঃ শ্যামল ইসলাম রাসেল

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech