বেনাপোল ঘিবা সীমান্তে অস্ত্র ও গাজাসহ আটক ১

  



পিএনএস, বেনাপোল: বেনাপোল ঘিবা সীমান্তের একটি বাসাবাড়ী থেকে ৩টি বিদেশী পিস্তল ৮ রাউন্ড গুলি ৬টি ম্যাগাজিন ও ৬ কেজি গাজাসহ আব্দুল খালেক নামে একজনকে আটক করেছে বিজিবি। তবে চোরাচালানীর সাথে জড়িত মাদক ও অস্ত্র ব্যাবসায়ি জামাল হোসেনকে আটক করতে পারেনি তারা। আটককৃত অস্ত্র গুলি ও মাদক চালানের মালিক জামাল বলে জানায় বিজিবি ও স্থানীয়রা। আটককৃত আব্দুল খালেক ঘিবা গ্রামের নই মুদ্দিন আলীর ছেলে।

যশোর ৪৯ বিজিবি ব্যাটলিয়নের অধিনায়ক লে: কর্নেল আরিফুল হক,জানান,বৃহস্পতিবার গভীর রাতে ভারত থেকে বেনাপোল ঘিবা সীমান্ত দিয়ে একটি অস্ত্র ও মাদকের চালান বাংলাদেশে অভ্যান্তরে প্রবেশ করছে জানতে পারেন তারা। এধরনের খবরে সুবেদার আব্দুল মালেক একদল বিজিবি জোয়ান নিয়ে শুক্রবার ভোর রাতে সীমান্তের ঘিবা গ্রামের আব্দুল খালেকের বাড়ীতে অভিযান চালায়। তার বাসাবাড়ী থেকে উদ্ধার করা হয় উল্লেখিত অস্ত্র গুলি ও মাদকের চালান। আটক করা হয় খালেককে।
অস্ত্র গুলি ও মাদকের চালানসহ আব্দুল খালেককে বেনাপোল পোর্ট থানায় সোপর্দ করা হয়েছে বলে জানান বিজিবি কর্মকর্তা। জামালকে আটকের চেষ্টা চলছে বলে জানান তিনি।

বিজিবি কর্মকর্তা আরো জানান চোরাচালানের সাথে জড়িতদের চিহ্নিত সহ পাচাররোধে বিজিবিকে আরো সতর্ক রাখা হয়েছে। সামনে নির্বাচনকে তার্গেট করে অস্ত্র ও মাদক পাচার সহ চোরাচালান রোধে কঠোর নজরদারী বাড়ানো হয়েছে। সজাগ রয়েছে বিজিবি। সর্বসাধারনের ও সহযোগিতা চান তিনি।

বাহাদুরপুর ইউপি চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান ও মেম্বর রফিকুল ইসলামসহ স্থানীয়রা জানান, প্রকৃত চোরাচালানের সাথে জড়িত আটককৃত আব্দুল খালেকের ভাই জামাল হোসেন। জামাল দীর্ঘদিন ধরে চোরাচালানীর করে আসছিল বলে জানায় স্থানীয়রা। তাকে আটকের দাবী জানান তারা। খালেক একজন নিরিহ কৃষক বলে জানান গ্রামের সাধারন মানুষেরা। তার বাড়ীতে এগুলো পাওয়ায় তাকে সন্দেহভাজন হিসাবে আটক করা হয়েছে বলেও জানান তারা।

ক্যাম্প কমান্ডার সুবেদার আব্দুল মালেক বলেন ঘটনার সময় খালেক বাড়ী থেকে পালানোর চেষ্টাকালে তাকে আটক করা হয়। বিষয়টি থানা পুলিশ সহ তারা খতিয়ে দেখবে বলে জানান।

পিএনএস/আনোয়ার

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech