নড়াইলে হিন্দু কিশোরীকে খ্রীস্টান বানাতে অপহরণ

  

পিএনএস ডেস্ক: নড়াইলে হিন্দু কিশোরী মেয়ে কে সুকৌশলে খ্রীস্টান বাননোর জন্য অপহরণ করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় অপহৃত ১১ বছরের কিশোরী কন্যা লিপা রায়ের বাবা লাল্টু রায় রোববার (২০ অক্টোবর) পুলিশ সুপারসহ বিভিন্ন দপ্তরে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

লিখিত অভিযোগ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, নড়াইল সদর উপজেলার মুলিয়া ইউনিয়নের বনগ্রাম ক্যাথলিক চার্চের পাশেই কিশোরী লিপা রায়দের বাড়ি। সে স্থানীয় মুলিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ৬ষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী। লিপা রায়ের সাথে সুকৌশলে সম্পর্ক গড়ে তোলে চার্চের ছাত্র সুনীল মুন্ডা (২৫)। গত ১৩ অক্টোবর বিকেলে লিপা রায় ওই চার্চে ঘুরতে গেলে তাকে ফুসলিয়ে নিয়ে পালিয়ে যায় চার্চের ছাত্র সুনীল মুন্ডা।

সুনীল মুন্ডার বাড়ি খুলনা জেলার কয়রা থানার ঢ্যাপখালী গ্রামে। সুনীল মুন্ডার গ্রামে গিয়েও তাদের পাওয়া যায়নি।

এ ঘটনার বিচার ও মেয়ে কে ফেরত পেতে লিপা রায়ের বাবা লাল্টু রায় চার্চের পরিচালক ফাদার বাবলুর স্মরনাপন্ন হন।

ফাদার বাবলু ৩ দিনের মধ্যে লিপা রায়কে ফেরত দেয়ার আশ্বাস দিয়ে লাল্টু রায় কে এ ঘটনা নিয়ে চুপ থাকার জন্য অনুরোধ জানায়। কিন্তু সপ্তাহ কেটে গেলেও লিপা রায়কে ফেরত দেননি। বরং এখন তাদের মেয়েকে সুনীল মুন্ডার সাথে বিয়ে দিয়ে স্বপরিবারে খ্রীস্টান হওয়ার জন্য অনুরোধ করছেন। এ ঘটনায় হিন্দু সম্প্রদায়ের চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে।

বনগ্রাম চার্চের পরিচালক ফাদার বাবলু বলেন, প্রেমের সম্পর্কের সূত্র ধরে সুনীল মুন্ডাকে নিয়ে পালিয়েছে লিপা রায়।

পিএনএস/হাফিজুল ইসলাম

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech