নবাবগঞ্জে উদ্ধারকৃত লাশের মাথার সন্ধান মিলেনি, পাওয়া গেছে পরনের কাপড়

  

পিএনএস, নবাবগঞ্জ (দিনাজপুর) প্রতিনিধি : দিনাজপুরের নবাবগঞ্জ থানা পুলিশের উদ্ধারকৃত নুরুজ্জামান সরকারের(পুষি) মস্তক বিহীন লাশের মাথার সন্ধান মিলেনি। ধান ক্ষেতে পাওয়া গেছে তার পরনের কাপড়।আজ শুক্রবার মাগুরা গ্রামের মাঠে ধান ক্ষেতের ভিতরে যেখান থেকে তার লাশটি উদ্ধার করা হয়েছিল সেখান থেকে কয়েক বিঘা জমির দুরত্বে ধান ক্ষেতের ভিতর থেকে তার পরনের সার্ট,প্যান্ট,জাঙ্গিয়া ও জ্যাকেট উদ্ধার করা হয়েছে।পুলিশের উপস্থিতিতে জনতা তার লাশের মাথার খোঁজ করার সময় ওই কাপড় গুলো পাওয়া যায়। এ সময় সেখানে উৎসুক জনতার ভিড় জমে যায়। এছাড়াও সন্দেহভাজন এক জনের বাড়ী থেকে ১টি ছুরি জনতা উদ্ধার করে পুলিশকে দিয়েছে বলে মাগুরা গ্রামের ইউ,পি সদস্য রুবেল মিয়া জানান।

উল্লেখ্য গত ৮ নভেম্বর বৃহস্পতিবার নবাবগঞ্জ থানা পুলিশ উপজেলার শালখুরিয়া ইউনিয়নের মাগুরা গ্রামের মাঠের ধান ক্ষেত থেকে বিরামপুর উপজেলার মাহালি পাড়ার নঈমুদ্দিন মাস্টারের ছেলে কাঠ ব্যবসায়ী নুরুজ্জামান সরকারের(পুষি) মস্তক বিহীন বিবস্ত্র লাশ উদ্ধার করে। সেই সাথে ঘটনার সংগে জড়িত সন্দেহে মাগুরা গ্রামের আফজাল হোসেনের ছেলে রফিকুল ইসলামকে আটক করে নিয়ে যায়। এ ব্যাপারে ওই দিনই পুষির বড় ভাই মনিরুজ্জামান সরকার বাদী হয়ে নবাবগঞ্জ থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করে। ওই মামলায় আটক রফিকুল ইসলামকে গ্রেফতার দেখানো হয়েছে। পুষির পরিবার জানান গত বুধবার বিকালে মাগুরা গ্রামের রফিকুল ইসলামের নিকট পাওনা টাকা নিতে গিয়ে পুষি আর বাড়ী ফিরে আসে নাই। পর দিন বৃহস্পতিবার তার লাশ পাওয়া যায়। তার ব্যবহৃত মটর সাইকেলটি উদ্ধার করা হয় রংপুরের মিঠাপুকুর এলাকা থেকে। নবাবগঞ্জ থানার পুলিশ পরিদর্শক(তদন্ত) শামসুল আলম জানান লাশের মাথা উদ্ধার ও মামলার অভিযুক্তদের গ্রেফতারে জোর তৎপরতা চালানো হচ্ছে।

পিএনএস/মোঃ শ্যামল ইসলাম রাসেল

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech