ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় মাদ্রাসা ছাত্রদের সড়ক অবরোধ

  

পিএনএস, ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি : গত শুক্রবার সন্ধ্যায় তাবলীগ জামায়াতের দু‘গ্রুপের সংঘর্ষের জের ধরে শহরের প্রধান সড়ক ৩ ঘন্টা অবরোধ করে রাখে কওমি মাদ্রাসার ছাত্ররা। এছাড়াও ব্রাহ্মণবাড়িয়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) রেজাউল কবীরের অপসারণসহ ৫ দফা দাবিতে তারা এ অবরোধ করেন।

শনিবার বেলা সাড়ে এগারটা থেকে বেলা আড়াইটা পর্যন্ত জেলা শহরের টিএ রোড অবরোধ করে রাখে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার জামিয়া ইসলামিয়া ইউনুছিয়া মাদ্রাসার ছাত্ররা। শহরের টিএ রোডের কান্দিপাড়া মাদ্রাসা মোড়ে অবস্থান নিয়ে দাবি আদায়ের লক্ষ্যে বিভিন্ন শ্লোগান দেয় তারা। পরে বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে বিক্ষোভকারীরা। এতে করে শহরের প্রধান সড়ক দিয়ে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।

শুক্রবার তাবলীগ জামায়াতের কওমিপন্থী ও মাওলানা সাদপন্থীদের মধ্যে সংঘর্ষে ১০ জন আহত হন। এই হামলায় তাবলীগের সাদপন্থী কর্মীদেরকে সহায়তার অভিযোগ উঠেছে পুলিশ কর্মকর্তা রেজাউল কবীরের বিরুদ্ধে।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জামিয়া ইসলামিয়া ইউনুছিয়া মাদ্রাসার মুহাদ্দিস মাওলানা আব্দুর রহীম কাসেমী বলেন, শুক্রবার রাতে সাদপন্থীদের হামলায় সুপরিকল্পিতভাবে সহযোগিতা করেছেন সদর সার্কেল রেজাউল কবীর। হামলায় সহযোগিতার কারণে আমরা তার প্রত্যাহার চাই।এছাড়া ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সাদপন্থী নেতা মাওলানা আনিছুর রহমানকে গ্রেপ্তার, ব্রাহ্মণবাড়িয়া মার্কাজকে সাদ অনুসারী মুক্ত করা, শুক্রবারের হামলার সাথে জড়িতদের বিচার এবং আহতদের ক্ষতিপূরণও দাবি করেন কওমি মাদ্রাসার ছাত্ররা। পরে দুপুর আড়াইটার দিকে মিছিল করে প্রেসক্লাবের সামনে গিয়ে সংক্ষিপ্ত সমাবেশ শেষে অবরোধ প্রত্যাহার করে তারা।

পিএনএস/মোঃ শ্যামল ইসলাম রাসেল

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech