পৈতৃক ও ক্রয়সূত্রে মালিক হয়েও বৃদ্ধার পরিবার ২৬ দিন ধরে খোলা আকাশের নিচে

  

পিএনএস, ময়মনসিংহ প্রতিনিধি : ‘বাবা জীবনে আর কিছু চাই না, নিজের বসতভিটায় তাইক্যা (থেকে) স্বামী সংসার নিয়ে মরবার(মরতে) চাই, আমনেরা মানুষরে জিগাইন(জিজ্ঞাসা), এই ভিটা আমার, সারা গেরামের (গ্রামে) মাইনষে (মানুষে)‘আমেনার ভিটা কয় (বলবে)।’

কাঁদতে কাঁদতে এভাবেই নিজ আঞ্চলিক ভাষায় বর্ণনা করছিলেন ময়মনসিংহের ত্রিশাল উপজেলার বালিপাড়া ইউনিয়নের বাহাদুরপুর গ্রামের বৃদ্ধা আমেনা বেগম (৭৫) নিজের জীবেনের চরম দুঃখ কষ্টের কথাগুলো।

বৃদ্ধা আমেনা বেগমের বর্ননায় ‘প্রায় ১৮ বছর আগে নিজ পৈতৃক ও ক্রয়সূত্রে মালিক হয়ে বসতভিটায় টিনশেড নির্মাণ করেন মাথা গোঁজার জন্য তিনি। প্রতিবেশীদের অত্যাচারে টেকেনি বেশি দিন। কিছুদিন পরই এক ঝড়ের রাতে সংসারেও নেমে আসে এক নির্মম ঝড়। রাতের অন্ধকারে প্রতিপক্ষরা বৃদ্ধ স্বামীকে নির্মমভাবে কুপিয়ে আহত করে। অভাব-অনটনের সংসারে ওই সময় চিকিৎসার জন্য টাকা না থাকায় বসতভিটার ঘরটি ২০ হাজার টাকায় বিক্রি করে চিকিৎসা করান মুমূর্ষু স্বামীর। বসতঘরটি বিক্রি করে দেয়ায় মাথা গোঁজার ঠাঁই হয় খোলা আকাশের নিচে। কয়েক দিন হুমকি-ধমকিতে থেকে জীবন বাঁচাতে বসতভিটা ছেড়ে পাড়ি জমান ঢাকার ইমামগঞ্জে। স্বামী বৃদ্ধ বয়সে সেখানে এক মার্কেটে চাকরি নেন দােরোয়ানের। আর তিনি অন্যের বাড়িতে ঝিয়ের কাজ নেন। দুই সন্তানের একজন প্রতিবন্ধী অপরজন গ্রামে গ্রামে ভাঙ্গারি ক্রয় করে ফেরিতে বিক্রি করে। জীবনের শেষ সময়ে নিজ ভিটাতে থাকতেই ১৭ বছর পর আসেন নিজ ভূমিতে ঘর নির্মাণ করতে আসেন সম্প্রতি। দীর্ঘদিনের উপার্জনের টাকা দিয়ে একটি টিনেশেড ঘর করতে গেলে প্রতিপক্ষরা টিন, ঘরের পালাসহ সব কিছুই মারধর করে নিয়ে যায়।’

সরেজমিনে খোঁজ নিয়ে জানা যায়, উপজেলার বালিপাড়া ইউনিয়নের বাহাদুর গ্রামের হতদরিদ্র বৃদ্ধ দম্পতির বাড়িঘর ভেঙে নির্যাতন করে ভিটেমাটি দখলের পাঁয়তারা করছে স্থানীয় প্রভাবশালীরা। ফলে ২৬ দিন ধরে খোলা আকাশের নিচে পলিথিনের ছাউনি দিয়ে মানবেতর জীবনযাপন করছেন তারা। বিচার চেয়ে দ্বারে দ্বারে ঘুরলেও প্রতিকার মিলছে না।

স্থানীয় একটি সূত্রে জানাযায়, হতদরিদ্র বৃদ্ধা আমেনা বেগম পৈতৃক ওয়ারিশ ও ক্রয়সূত্রে পাওয়া ১৩ শতক জমিতে প্রায় ১৭ বছর আগে ঘর নির্মাণ করে স্বামী-সন্তান নিয়ে বসবাস করছিলেন। কিছুদিন পর ভাইপো বাচ্চুর নেতৃত্বে স্থানীয় প্রভাবশালীরা তার স্বামী জয়নাল আবেদীনকে (৭৭) কুপিয়ে জখম করে মালামাল লুট করে নিয়ে যায়। পরে ভয়ে এলাকা ছেড়ে চলে যায় ঢাকার ইমামগঞ্জে। সম্প্রতি এই জমিতে এসে ঘর নির্মাণ করলে রাতের আঁধারে ঘর ভেঙে নিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা। গত ২৬ দিন ধরে পলিথিনের ছাউনি দিয়ে খোলা আকাশের নিচে মানবেতর জীবনযাপন করছেন তারা।

ত্রিশালের বালিপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান গোলাম মোহাম্মদ বাদল জানান, এটা আসলে আমেনার ভিটা, এ নামেই পরিচিত ওই এলাকায়। ওরা একেবারেই নিরীহ, ঘর ভেঙে নেয়ার পর আবার ঘর নির্মাণের জন্য সরকারি বরাদ্দ থেকে আমি টিনও দিয়েছি। এ ঘটনায় জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক বিচার দাবি করেন তিনি।

ত্রিশাল উপজেলা সহকারী কমিশিনার (ভূমি) মোঃ এরশাদ উদ্দিন জানান, আমেনা খারিজ বাতিলের জন্য একটি মামলা করেছে। কাগজপত্র যাচাই-বাছাই করে দ্রুত এ মামলার রায় দেয়া হবে বলে আরও জানান তিনি।

পিএনএস/মোঃ শ্যামল ইসলাম রাসেল

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech