নরসিংদীতে প্রতিবন্ধী পরিবারের উপর চাঁদাবাজদের হামলা, ৯ দিনেও কোন ব্যবস্থা নেয়নি পুলিশ

  

পিএনএস, নরসিংদী : নরসিংদীর মাধবদী আটপাইকা গ্রামে চাঁদার দাবিতে প্রতিবন্ধী পরিবারের উপর হামলার ঘটনা ঘটেছে।

আহতবস্থায় ৯ দিন যাবৎ হাসপাতালে থাকলেও প্রশাসন তাদের বিরুদ্ধে কোন ব্যবস্থা নিচ্ছে না। আহতরা হলেন, মোজাম্মেল, ফারুক, শরীফ, আরিফ। তবে তাদের অবস্থা আশংকা জনক বলে জানিয়েছেন কর্তব্যরত চিকিৎসক। ১২ জানুয়ারী শনিবার সকালে প্রতিবন্ধীর নিজ বাড়িতে প্রতিবন্ধীর মা হাজী নূর জাহান বিবি অভিযোগ করে বলেন, জমি-জমা আত্মসাৎ করার জন্য আমার ছেলে মোজাম্মেল ও নাতী ফারুক, শরীফ, আরিফ আমার প্রতিবন্ধী ছেলের উপর ২৫ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে হামলা চালিয়েছে। আমার প্রতিবন্ধী ছেলে আহতবস্থায় ৯ দিন যাবৎ নরসিংদী ১০০ শয্যা বিশিষ্ট জেলা হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছে। এখনো তাদের প্রাননাশের হুমকি দিয়ে যাচ্ছে। আমি তাদের বিচার চাই।

এলাকাবাসী জানায়, দীর্ঘদিন যাবৎ প্রতিবন্ধীর জমিতে তাদের মালিকানা দাবি করে ২৫ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে আসছে। ইতিপূর্বেও চাঁদা না দেওয়ায় হামলা চালিয়ে নগদ টাকা-স্বর্নলঙ্কার লুটপাট ও বাড়ি ঘর ভাংচুর করেছে। প্রতিবন্ধী ও প্রতিবন্ধীর ভাইকে তারা মারাত্মকভাবে জখম করেছে। তারা গ্রামের মাতাব্বরদের কথাও মানেনি, তাদের বিচার হওয়া উচিৎ। এ ঘটনায় প্রতিবন্ধী শাকিল বাদী হয়ে জুড়িশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে একটি মামলা দায়ের করেন। মামলাটি মাধবদী থানায় তদন্তাধীন আছে। এ ব্যাপারে মাধবদী থানার ওসি আবু তাহের দেওয়ানের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, প্রতিবন্ধীর উপর হামলা, এটা অত্যন্ত নিন্দনীয় কাজ। আমি খোজখবর নিচ্ছি। তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

পিএনএস/মোঃ শ্যামল ইসলাম রাসেল




 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech