ঘোড়াশাল রেলওয়ে ভবনে ফাটল, ঝুঁকিতে চলছে স্টেশনের কার্যক্রম

  

পিএনএস, নরসিংদী প্রতিনিধি : নরসিংদীর পলাশ উপজেলার ঘোড়াশাল ফ্ল্যাগ রেলওয়ে স্টেশনের পুরাতন ভবনের কয়েকটি পিলারে ফাটল দেখা দিয়েছে। বহু বছরের পুরাতন ভবনটির সংস্কার কাজ না হওয়ায় ঝুঁকি নিয়ে চলছে স্টেশনের কার্যক্রম। যে কোনো সময় বড় ধরণের দুর্ঘটনায় যাত্রীসহ অনেকেরই প্রাণহানির ঘটনা ঘটতে পারে। ধ্বংসস্তুপে পরিণত হতে পারে ভবনটি।

ঘোড়াশাল পৌর এলাকার শীতলক্ষ্যা নদীর পাশে অবস্থিত দেশের একমাত্র দোতলা রেলওয়ে স্টেশন এটি। শিল্পসমৃদ্ধ এই শহরে হাজারও মানুষের বসবাস। এখানে রয়েছে দেশের বৃহৎ তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্র, ২টি সারকারখানা, ২টি সিমেন্ট কারখানা, প্রাণ আরএফএলের তিনটি কারখানা, ৩টি জুটমিল, পেপার মিল, ড্রাইং,সিলিন্ডার গ্যাস ও রড ফ্যাক্টরীসহ অসংখ্য ছোট বড় কারখানা। এসকল কারখানায় কর্মরত আছে প্রায় ৪০ হাজার কর্মকর্তা ও শ্রমিক-কর্মচারী। এই শহর থেকেই ঢাকাসহ বিভিন্ন জেলায় প্রতিদিন যাতায়াত করে হাজারও যাত্রী। বেশির ভাগ যাত্রীই বাস সার্ভিসের পরিবর্তে ট্রেনের ওপর নির্ভর হয়ে পড়েছে। স্টেশনটি ঝুঁকিপূর্ণ থাকার পরেও প্রাণহানির আতঙ্ক নিয়েই ঢাকাসহ অন্যান্য স্থানে যাতায়াত করছে যাত্রীরা।

ঘোড়াশালের মারুফ রহমান বলেন, সড়ক পথে যানজটের সমস্যার কারণে ঘোড়াশাল ফ্ল্যাগ রেলওয়ে স্টেশন থেকেই প্রতিদিন ঢাকা আসা যাওয়া করি। এই স্টেশনের পুরাতন ভবনটি এখন মৃত্যু ফাঁদে পরিণত হয়েছে। ভবনের নিচতলার ওপরের কিছু অংশ ধসে পড়ে যাচ্ছে। কয়েকটি পিলারের ফাটল দেখা দিয়েছে অসংখ্য। এমন অবস্থায় চলতে থাকলে যেকোনো সময় বড় ধরণের দুর্ঘটনা ঘটতে পারে এখানে। তাই সংশ্লিষ্ট রেলওয়ে কর্তৃপক্ষের কাছে দাবি এ স্টেশনটি যেনো জরুরী ভিত্তিতে সংস্কার করা হয়। এ ব্যাপারে রেলওয়ের বিভাগীয় প্রকৌশলী আব্দুস সালামের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করলে তিনি প্রধান প্রকৌশলীর সাথে কথা বলতে বলেন। এসব বিষয়ে প্রধান প্রকৌশলী ছাড়া তিনি কিছুই বলতে পারবেন না বলে জানান।

পিএনএস/মো: শ্যামল ইসলাম রাসেল

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech