চাঁদপুরের মেঘনায় অল্পের জন্য রক্ষা পেলো লঞ্চের তিন শতাধিক যাত্রী

  


পিএনএস ডেস্ক: চাঁদপুরের মেঘনা নদীর মোহনপুর এলাকায় বালুভর্তি কার্গো জাহাজের সাথে ধাক্কা লেগে যাত্রীবাহী লঞ্চ এমভি গৌরি অব শ্রীনগর-২ তলা ফেটে গেলে সারেংয়ের বুদ্ধিমত্তায় লঞ্চটি দ্রুত তীরে ভিড়াতে সক্ষম হয়। এতে অল্পের জন্য রক্ষা পেলো লঞ্চের তিন শতাধিক যাত্রী।

লঞ্চের মালিক মো: কামরুল ইসলাম জানান, যাত্রীবাহী লঞ্চ এমভি গৌরি অব শ্রীনগর-২ মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ঢাকার সদরঘাট থেকে প্রায় তিনশত যাত্রী নিয়ে ভোলার লালমোহনের উদ্দেশে রওনা হয়। রাত ১০টার দিকে একটি বালুভর্তি বড় কার্গো পাশের দিক থেকে লঞ্চটিকে ধাক্কা দেয়। এতে লঞ্চের সামনের তলা ফেটে যায়। পরে লঞ্চে পানি প্রবেশ করতে থাকলে ওই সময় পেছনে থাকা ভোলা চরফ্যাশন উপজেলা হুলারহাটগামী শ্রীনগর-৮ লঞ্চটিকে খবর দিলে তারা ঘটনাস্থলে আমার লঞ্চের যাত্রীদের উদ্ধার করে লালমোহনের উদ্দেশে রওনা হয়।

মতলব উত্তর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো: মিজানুর রহমান জানান, মঙ্গলবার রাত ১০টায় মোহনপুর এলাকায় দুর্ঘটনাটি ঘটে। একটি কার্গোর সাথে ধাক্কা লেগে যাত্রীবাহী লঞ্চ এমভি গৌরীর তলা ফেটে যায়। তবে কোনো যাত্রীর ক্ষয়ক্ষতি হয়নি। আমরা যাত্রীদের নিরাপত্তার দায়িত্ব নেই। পরে আরেকটি লঞ্চ খবর দিয়ে আনা হলে যাত্রীরা তুলে গন্তব্যে রওনা হয়।

চাঁদপুর নৌপুলিশের ইনচার্জ মো: নাসির উদ্দিন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানিয়েছেন, লঞ্চটির তলা ফেটে গেলে চালক দ্রুত লঞ্চটিকে একটি চরে উঠিয়ে দেন। যার কারণে যাত্রীদের কোনো সমস্যা হয়নি। বর্তমানে তলা ফেটে যাওয়া লঞ্চটি চরে উঠিয়ে রাখা হয়েছে।

মতলব উত্তর উপজেলার নির্বাহী অফিসার শরমিন আক্তার খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে যান।

পিএনএস/আনোয়ার

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech