সকালে আটক রাতে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ যুবক নিহত

  



পিএনএস ডেস্ক: সকালে আটকের পর রাতে কক্সবাজারের টেকনাফে পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে হানিফ নামে এক যুবক নিহত হয়েছেন। পুলিশ দাবি করেছে, নিহত যুবক মাদক কারবারি। বন্দুকযুদ্ধের সময় তিন পুলিশ সদস্য আহত এবং ঘটনাস্থল থেকে অস্ত্র, গুলি ও ইয়াবা জব্দ করা হয়েছে।

বুধবার দিবাগত রাতে টেকনাফ মেরিন ড্রাইভের লম্বরী এলাকায় এ বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে। নিহত হানিফ (৩৮) টেকনাফের হ্নীলা ইউনিয়নের নাটমুরা পাড়া এলাকার মৃত কাসেম আলীর ছেলে। বুধবার সকালে পুলিশের একটি দল বিশেষ অভিযান চালিয়ে চিহ্নিত মাদক কারবারি হিসেবে তাকে আটক করে।

টেকনাফ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) প্রদীপ কুমার দাশ বলেন, আটক ইয়াবা কারবারি হানিফের স্বীকারোক্তি অনুযায়ী রাতে টেকনাফ সদর ইউনিয়ন মেরিন ড্রাইভ এলাকায় লুকিয়ে রাখা ইয়াবা, অস্ত্র উদ্ধারের জন্য অভিযানে চালানো হয়। এ সময় তার সহযোগীরা পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে এলোপাতাড়ি গুলিবর্ষণ করে। আত্মরক্ষার্থে পুলিশ সদস্যরা গুলি চালালে হানিফ গুলিবিদ্ধ হয়। পরে তাকে উদ্ধার করে টেকনাফ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

বন্দুকযুদ্ধে পুলিশের তিন সদস্য আব্দুর শুক্কুর, মংথিন প্রো ও জুয়েল বড়ুয়া আহত হয়েছেন। ঘটনাস্থল তল্লাশি করে অস্ত্র, গুলি ও ইয়াবা উদ্ধার করা হয়েছে। এদিকে মরদেহের ময়নাতদন্ত রিপোর্ট তৈরি করে কক্সবাজার সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

ওসি আরও বলেন, নিহত হানিফ হ্নীলা ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ড এলাকার চিহ্নিত ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তালিকাভুক্ত মাদক কারবারি। তার বিরুদ্ধে মাদক, অস্ত্র মামলাসহ বেশ কয়েকটি মামলা রয়েছে। বন্দুকযুদ্ধের ঘটনায় পৃথক মামলা হচ্ছে বলে জানান ওসি।

পিএনএস/ হাফিজুল ইসলাম

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech