বোমা তৈরির সময় বিস্ফোরণ: আহত ২

  



পিএনএস ডেস্ক: যশোর শহরের বারান্দী মোল্লাপাড়ায় বোমা বানানোর সময় বিস্ফোরণে শীর্ষ সন্ত্রাসী ফিঙে লিটনের ভাগনেসহ দু’জন আহত হয়েছেন। তারা হলেন- বারান্দী মোল্লাপাড়ার সিরাজুল ইসলামের ছেলে শরিফুল ইসলাম জিতু (৩০) ও একই এলাকার মঞ্জু মিয়ার ছেলে শহীদুল ইসলাম (২৮)। তাদের মধ্যে জিতুর অবস্থা আশঙ্কাজনক।

শুক্রবার (১৪ জুন) রাতে এ ঘটনা ঘটে। আহত শহীদুল প্রাথমিক চিকিৎসা গ্রহণ করলেও শরিফুল ইসলাম জিতুকে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বর্তমানে তিনি সেখানে চিকিৎসাধীন।

স্থানীয়রা জানান, বারান্দী মোল্লাপাড়ার সিরাজুল ইসলামের ছেলে জিতু ও মঞ্জু মিয়ার ছেলে শহীদুল সন্ত্রাসী প্রকৃতির। তারা নানা অপকর্মের সাথে জড়িত। রাত ৮টার দিকে তারা দু’জন মোল্লাপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পাশে বোমা তৈরি করছিলেন। এ সময় অসাবধানবশত বোমার বিস্ফোরণ ঘটে। এতে তারা দু’জন আহত হন। খবর পেয়ে পরিবারের সদস্যরা তাদেরকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যান।

যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালের জরুরি বিভাগে দায়িত্বরত চিকিৎসক কাজল মল্লিক জানান, দু’জনের মধ্যে গুরুতর জিতুকে ভর্তি করে চিকিৎসার জন্য সার্জারি ওয়ার্ডে পাঠানো হয়েছে। আর শহীদুল ইসলামকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

অর্থোপেডিক বিভাগের চিকিৎসক বজলুর রশিদ টুলু জানান, বোমার আঘাতে জিতুর বাম হাত ও চোখে মারাত্মক জখম হয়েছে। তার অবস্থা আশঙ্কাজনক।

আহত জিতুর মা লিপি বেগম সাংবাদিকদের জানান, বোমা তৈরির সময় বিস্ফোরণে তার ছেলে জখম হয়েছেন বলে জানতে পেরে হাসপাতালে দেখতে এসেছেন।

এ বিষয়ে যশোর কোতোয়ালি মডেল থানার ওসি (তদন্ত) সমীর কুমার সরকার জানান, বোমা বিস্ফোরণে আহতের বিষয়টি পুলিশ খোঁজ-খবর নিয়ে দেখছে।

পিএনএস/ হাফিজুল ইসলাম

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech