সরাইলে আশ্রয়ণের অধিকার শেখ হাসিনার উপহার সাইনবোর্ড সম্বলিত 'ঘর আছে, বসবাসের মানুষ নেই'

  

পিএনএস, ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি : ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা সরাইল উপজেলায় 'প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপহার দেওয়া ঘর' থাকলেও এই ঘরে বসবাস করার মানুষ নেই। আশপাশের লোকজন জানান, সরকারি অর্থায়নে এই ঘর নির্মাণ হওয়ার পর থেকে ঘরটি মানুষ শূন্য অবস্থায় তালাবদ্ধ হয়ে পড়ে আছে মাসের পর মাস ধরে।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, অনুমান বছর দু'য়েক আগে "সরকারের জমি আছে ঘর নেই" প্রকল্পের একটি ঘর পান উপজেলার কালীকচ্ছ ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডের দক্ষিণ কালীকচ্ছ গ্রামের বাসিন্দা মোঃ ইনু মিয়ার ছেলে মোহাম্মদ আলী। তবে ঘরটি নির্মাণ হওয়ার পর একদিনও তিনি এই ঘরে বসবাস করেননি। মাসের পর মাস এই ঘর তালাবদ্ধ রেখে মোহাম্মদ আলী পরিবার নিয়ে একই গ্রামে অন্যত্র বসবাস করছেন। তবে কয়েকদিন আগে তিনি এই ঘর তার ছোট ভাই রফিক মিয়ার কাছে ভাড়া দিয়েছেন বলে প্রতিবেশী লোকজন জানান।

এদিকে আশপাশের একাধিক লোকজন অভিযোগ সহকারে জানান, মোহাম্মদ আলী এই সরকারি ঘর স্থানীয় ইউপি সদস্যকে ২৫ হাজার টাকা ঘুষ দিয়ে এনেছেন। এখন এই ঘর তালাবদ্ধ। অথচ এই ঘরের পাশেই রয়েছে গৃহহীন কয়েকটি পরিবার। তারা এই ঘর দেখে শুধু দীর্ঘশ্বাস ফেলে।

এ ব্যাপারে জানতে খোঁজ করা হলে মোহাম্মদ আলীকে পাওয়া যায়নি। তবে তার ভাই রফিক মিয়া জানান, বড় ভাই মোহাম্মদ আলী এই ঘরে থাকেন না। তিনি অন্যত্র বসবাস করেন। এই সরকারি ঘরে রফিক তার দ্বিতীয় স্ত্রীকে নিয়ে কয়েকদিন আগে উঠেছেন।

এ বিষয়ে কালীকচ্ছ ইউপি চেয়ারম্যান শরাফত আলী বলেন, বিষয়টি আমি আগে জানতাম না। এখন খোঁজ খবর নিয়ে দেখবো।

সরাইল উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা (পিআইও) সাইফুল ইসলাম বিষয়টি জেনে আশ্চর্য হয়ে বলেন, "যে ব্যক্তি ঘর পেয়েও এই ঘরে বসবাস করেননা, এমন ব্যক্তিকে জনপ্রতিনিধিরা কেন ঘর দিলেন"? বিষয়টি আমি অবশ্যই খোঁজ খবর নিব।

পিএনএস/মোঃ শ্যামল ইসলাম রাসেল

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech