গলা কেটে লাশগুম ও অশ্লীল ভিডিও ভাইরাল করা হবে ভয় দেখিয়ে মুক্তিপণ আদায়

  

পিএনএস, নরসিংদী প্রতিনিধি : নরসিংদীর মনোহরদী উপজেলার হাতিরদিয়া বাজার থেকে মনোহরদী পরিবহনে যোগে নারায়ণগঞ্জের সাইবোর্ড যাওয়ার পথে মলম পার্টির খপ্পরে পরে নুরে আলম (২৭) নামে এক যুবক। তাকে সাইনবোর্ড বাসস্ট্যান্ড থেকে অজ্ঞান অবস্থায় তুলে নেয় তিন সদস্যের একটি মলম পার্টির দল। তাকে একটি বাসায় নিয়ে মারধর করে, গলা কেটে লাশ গুম ও অশ্লীল ভিডিও ধারন করে ভাইরাল করার ভয় দেখিয়ে মুক্তিপণ আদায় করে ছেড়ে দেয়া হয়। নুরে আলম হাতিরদিয়া বাজারের টেইলারস ব্যবসায়ি। সে গাজিপুরের কাপাসিয়ার সনমানিয়া গ্রামের মৃত: ক্বারী ফজলুল হকে ছেলে।

নুরে আলম জানান, শনিবার (১৩ জুলাই) বিকালে হাতিরদিয়া বাজার থেকে মনোহরদী পরিবহন যোগে সাইনবোর্ড এলাকায় তার চাচাতো ভগ্নীপতির বাসায় যাওয়ার পথে অজ্ঞান হয়ে যায় নুরে আলম। পরে চোখ খুলে দেখতে পায় একটি বাসায় বন্ধি অবস্থায় রয়েছে। পরে মলম পার্টির দলের তিন সদস্য সেখানে তাকে মারধর করে। পরিবারের কাছ থেকে কৌশলে টাকা আনতে বলে, অন্যথায় গলা কেটে লাশ গুমকরা হবে এমন ভয় দেখায় তারা। প্রাণের ভয়ে পরিবারের কাছ থেকে বিকাশ মাধ্যমে ২০ হাজার টাকা মুক্তিপণ দিয়ে চক্রটির কাছ থেকে মুক্তি পায় নুরে আলম। পরে সন্ধ্যায় সাইবোর্ড এলাকায় চোখ বেধে ফেলে রেখে চলে যায় মলম পার্টির দল। নুরে আলম আরো জানান, চক্রটি তার সাথে অশ্লীল ব্যবহার করে ও ছবি তুলে রাখে যদি আইনের আশ্রয় নেয় তবে ছবি ও ভিডিও ভাইরাল করে দিবে তারা।

নুর আলমের ভগ্নীপতি রুবেল জানান, শনিবার বিকালে নুরে আলমকে অজ্ঞান করে তুলে নিয়ে ৭০ হাজার টাকা দাবি করে একটি চক্র। পরে বিশ হাজার টাকা দিয়ে তাকে রক্ষা করা হয়। নুরে আলম রাত সাড়ে ১১টায় বাড়িতে আসে। তার শরীরে মারধরের চিহ্ন রয়েছে।

পিএনএস/মোঃ শ্যামল ইসলাম রাসেল

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech