বাল্যবিবাহ থেকে রক্ষা পেল ৬ষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী আয়েশা

  

পিএনএস, তানোর (রাজশাহী) সংবাদদাতা : রাজশাহীর তানোরে বাল্যবিবাহের হাত থেকে রক্ষা পেল ৬ষ্ঠ শ্রেণির শিক্ষার্থী আয়েশা আক্তার (১৩)।

তানোর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোছা: নাসরিন বানুর হস্তক্ষেপে এ বাল্যবিবাহ বন্ধ হয়। আয়েশা তানোর পৌরসভা উচ্চ বিদ্যালয়ের ৬ষ্ঠ শ্রেণির শিক্ষার্থী ও পৌর এলাকার চাঁদপুর গ্রামের ইসাহাক আলী মেয়ে।

উপজেলা তথ্যসেবা কর্মকর্তা মোসা: মৌসুমী খাতুন বলেন, বৃহস্পতিবার দুপুর ৩টায় ওই ছাত্রীর বাড়ি চাঁদুপর গ্রামে পৌর সদরের গুবিরপাড়া গ্রামের মমিনুল নামে এক ছেলের সাথে বিয়ের আয়োজন চলছিল। সরেজমিনে দেখার জন্য উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নির্দেশ দেন। আমি সত্যতা পেয়ে বিয়েটি বন্ধ করে দেই এবং মেয়ের বাবা ও মাকে বাল্যবিয়ের কুফল সম্পর্কে বিস্তারিত জানাই এবং মেয়ের বিয়ের বয়স না হওয়া পর্যন্ত বিয়ে না দেওয়ার জন্য মুছলেখা নিই। মেয়েটির নিজের মা না থাকায় সৎমা অসহায়ত্বের সুযোগ নিয়ে এ কোমলমতির শিক্ষার্থীকে পৌর এলাকার অবস্থাশালী ব্যক্তির ছেলের সাথে বিয়ে দেয়ার আয়োজন করেন।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোছা: নাসরিন বানু বলেন, মেয়েটির বিয়ের বয়স না হওয়ায় আমি তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা গ্রহণ করি। পরে বিয়েটি বন্ধ করে দেই। মেয়ের বাবা ও মা মেয়ের বয়স না হওয়া পর্যন্ত বিয়ে দিবে না মর্মে মুছলেখা দিয়েছেন। ভবিষ্যতে বাল্যবিয়ের ব্যাপারে আরো কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে।

পিএনএস/মো. শ্যামল ইসলাম রাসেল

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech