অভিযানে ভুয়া চিকিৎসককে কারাদণ্ড

  

পিএনএস ডেস্ক: শেরপুরের নালিতাবাড়ীতে অভিযান চালিয়ে মো. শহিদুল ইসলাম (৪২) নামে এক ভুয়া চিকিৎসককে দুই মাসের কারাদণ্ড দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

শনিবার (১২ অক্টোবর) রাত আটটার দিকে নালিতাবাড়ী শহরের মধ্যবাজার এলাকায় লাবণ্য মেডিসিন অ্যান্ড হেলথ কেয়ার থেকে তাকে আটক করে কারাদণ্ড দেয়া হয়। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএন) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. আরিফুর রহমান এ ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন। সাজাপ্রাপ্ত শহিদুল ইসলামকে পরে কারাগারে প্রেরণের জন্য নালিতাবাড়ী থানায় সোপর্দ করা হয়েছে।

উপজেলা প্রশাসন ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গাইবান্ধা জেলা সদরের খোর্দ মালিবাড়ী গ্রামের মৃত জসিম উদ্দিনের ছেলে মো. শহিদুল ইসলাম। তিনি এইচএসসি পাশ করে ঢাকার একটি প্রতিষ্ঠান থেকে ‘ডিএমএফ’ সনদপত্র নিয়ে নিজেকে ‘পলিপ, পাইলস ও হাঁপানি রোগের চিকিৎসক’ বলে পরিচয় দিয়ে নামের আগে ‘ডা.’ ও ‘এমএ’ উপাধি ব্যবহার করছেন। এ উপাধি ব্যবহার করে তিনি গত প্রায় আড়াই থেকে তিন বছর যাবত নালিতাবাড়ী শহরের লাবণ্য মেডিসিন অ্যান্ড হেলথ কেয়ারে সপ্তাহের প্রতি সোমবার এবং সপ্তাহের অন্যান্য দিন উপজেলার নন্নী ও বনকুড়া বাজার সহ বিভিন্ন বাজারের ওষুধের দোকানে চেম্বার খুলে চিকিৎসা করে আসছেন।

সম্প্রতি বিষয়টি উপজেলা প্রশাসনের নজরে এলে শনিবার রাতে লাবণ্য হেলথ কেয়ারে অভিযান পরিচালনা করেন ইউএনও আরিফুর রহমান। এ সময় ওই শহিদুলকে হাতেনাতে আটক করা হয় এবং উপস্থিত সাক্ষ্য প্রমাণের ভিত্তিতে তাকে ২ মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেয়া হয়। অভিযানকালে নালিতাবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. মো. জাহিদ হাসান উপস্থিত ছিলেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করে নালিতাবাড়ী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আরিফুর রহমান জানান, ভুয়া চিকিৎসক শহিদুল ইসলামকে কারাগারে পাঠানোর পুলিশের কাছে সোপর্দ করা হয়েছে।

পিএনএস/ হাফিজুল ইসলাম

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech