বিজয়নগরে বিয়ে বাড়িতে মাংসে বিষ মাখানোর অভিযোগে আটক ১

  

পিএনএস, ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি : ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার বিজয়নগর উপজেলায় বিয়ে বাড়িতে গরুর মাংসের সাথে বিষ মাখানোর অপরাধে রাজিব মিয়া (৩৭) নামক এক কসাইকে আটক করা হয়েছে । সে উপজেলার বারঘরিয়া গ্রামের মৃত সৈয়দ মিয়ার ছেলে ।

বিজয়নগর থানার পুলিশ ও প্রত্যেক্ষদর্শীরা জানান, আজ ২১ নভেম্বর বৃহষ্পতিবার বিজয়নগর উপজেলার বুধন্তি ইউনিয়নের বারঘরিয়া গ্রামের মৃত সাজুত খানের ছেলে মো: আয়ুব খান (৩০) এর বিয়ের বৌভাত অনুষ্ঠান ছিল। বিয়ে বাড়ির ৪ শতাধিক অতিথির আপ্যায়নের জন্য সকালে খাতাবাড়ী গ্রামের বাবুর্চি মাসুম গরুর মাংস রান্না করা কালে আগুনের তাপ পাবার পর হঠাৎ মাংসের স্বাভাবিক রং পরিবর্তন হয়ে যায়। এতে তার মনে সন্দেহের সৃষ্টি হয়। পরে তিনি বিষয়টি আয়ুবের অভিভাবককে জানালে এনিয়ে বিয়ে বাড়িতে আতংক সৃষ্টি হলে তারা কসাই রাজীবের (৩৭) কাছে ছুটে যান এবং রাজীবকে বিয়ে বাড়িতে ডেকে নিয়ে কঠোরভাবে জিজ্ঞাসাবাদ করেন। জিজ্ঞাসার এক পর্যায়ে রাজীব পাশের গ্রামের বাবুর্চি আব্দুল এর নাম বলে এবং উক্ত বাবুর্চিকে কাজ না দেয়ায় তার পরামর্শে মাংসে বিষ মেশানো হয়েছে বলে স্বীকার করে ।

এ ব্যাপারে বর মো: আইয়ুব খান বলেন, বৌভাত অনুষ্ঠানের জন্য গত বুধবার দিবাগত গভীর রাত থেকেই আয়োজন চলছিল। সকালের নাস্তার পর বাবুর্চি গরুর মাংস রান্না করার সময় মাংসের রং পরিবর্তন হলে তার মনে সন্দেহ সৃষ্টি হয়। পরে কসাই রাজিবকে ডেকে আনলে সে বিষ মাখানোর বিষয়টি স্বীকার করে । পরে তাকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করা হয় ।

ইসলামপুর পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ আ. স. ম আতিকুর রহমান ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে রাজীব (৩৭) নামে একজন কসাইকে আটক করেছি । তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

পিএনএস/মোঃ শ্যামল ইসলাম রাসেল

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন