বিশ্ববিদ্যালয়ছাত্রীর ঝুলন্ত লাশ

  

পিএনএস ডেস্ক : চুয়াডাঙ্গায় পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্রীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকালে শহরের মাস্টারপাড়ার একটি বাসা থেকে লাশটি উদ্ধার করে পুলিশ। ওই ছাত্রীর পরিবারের দাবি, প্রেমে প্রত্যাখ্যাত হয়ে মেয়েটি গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন।

লাশ উদ্ধার হওয়া ছাত্রীর নাম নুসরাত জাহান নাভানা (২৪)। তিনি মাস্টারপাড়ার মৃত আবদুল হান্নান মুন্সির মেয়ে ও কুষ্টিয়ার ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের স্নাতকোত্তরের ছাত্রী ছিলেন।

নুসরাতের চাচা ফজলে রাব্বী বলেন, বুধবার দিবাগত রাত ১১টার দিকে নুসরাত তাঁর কক্ষে ঘুমাতে যান। বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে সাতটার দিকে বাসার কাজের মেয়ে বিলকিস দরজা খুলে দেখেন গলায় ওড়না প্যাঁচানো অবস্থায় নুসরাত ফ্যানের সঙ্গে ঝুলে আছেন। বিলকিসের চিৎকারে বাড়ি ও আশপাশের লোকজন ছুটে এসে নুসরাতের লাশ নামান। এরপর চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের মর্গে ময়নাতদন্ত শেষে সন্ধ্যায় তাঁর লাশ দাফন করা হয়।

এ ঘটনায় আত্মহত্যায় প্ররোচনার অভিযোগে মো. ফজলে রাব্বী বাদী হয়ে শহরের হকপাড়ার বাসিন্দা সালমান সাহেদ তন্ময়কে (২৮) আসামি করে মামলা করেছেন।

এ ঘটনায় আত্মহত্যার প্ররোচনার মামলা নেওয়া হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন সদর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) জসিম উদ্দিন।

এ দিকে অভিযুক্ত সালমান বলেন, তাঁদের দুজনের মধ্যে চমৎকার বোঝাপড়া ছিল। তবে আত্মহত্যার প্ররোচনার অভিযোগ ঠিক নয়।

পিএনএস-জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন