রাঙামাটিতে সড়ক ও নৌ-পথে নিহত ৭, নিখোঁজ ২

  

পিএনএস ডেস্ক : রাঙামাটিতে দুটি নৌকাডুবির ঘটনায় ৬ জন নিহত হয়েছে। সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছে ১ জন। নৌকাডুবির ঘটনায় নিখোঁজ রয়েছে আরো ২ জন। নিহত ৫ জনের লাশ উদ্ধার করেছে ফায়ার সার্ভিসের উদ্ধারকারী দল। নিখোঁজদের উদ্ধার অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

শুক্রবার দুপুরে রাঙামাটি চট্টগ্রাম ইপিজেড থেকে আসা একদল পর্যটক রাঙামাটির পর্যটন ঘাট থেকে ইঞ্চিনচালিত বোটে করে কাপ্তাই নৌ ভ্রমণে বের হয়। এসময় রাঙামাটি জেলা প্রশাসক বাংলোর দক্ষিণে পুরণো রাজার বাড়ি এলাকা দিয়ে যাওয়ার সময় অপর আরেবটি ইঞ্জিন চালিত নৌকা ওভারটেক করতে গিয়ে হঠাৎ একটি বোট উল্টে গিয়ে ডুবে যায়। এতে ৫ জন নারী নিহত হয়।

উল্টে যাওয়ার ঘটনায় ৫ জনের লাশ উদ্ধার করে ফায়ার সার্ভিসের উদ্ধার কমীরা। এদের মধ্যে রিনা (১৬), শিলা (২৬), আসমা (৩০) পরিচয় পাওয়া গেছে। অপর দু'জনের পরিচয় পাওয়া যায়নি।

এদিকে প্রায় একই সময়ে কাপ্তাই উপজেলায় শিলছড়ি এলাকায় চট্টগ্রাম থেকে আসা পূণ্যার্থীরা দুটি ইঞ্জিন চালিত বোটে করে কর্ণফুলী নদীর তীরে মন্দিরগুলোতে তীর্থ ভ্রমণে যায়। এ সময় চা বাগানের পাশের মন্দিরে বোট দুটি ভিড়লে একটি ডুবে যায়। এ ঘটনায় দেবলীলা (১০) নামে এক শিশুর লাশ উদ্ধার করেছে উদ্ধারকারীরা। এতে বিনয় মজুমদার (৫), টুম্পা মজুদমদার (৩০) নামে ২ জন নিখোঁজ রয়েছে।

উদ্ধারে কাজ করছে ফায়ার সার্ভিস ও নৌ বাহিনীর ডুবুরিরা। কাপ্তাই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আশ্রাফ আহমেদ রাসেল বলেন, মূলত অতিরিক্ত যাত্রী তোলায় এ দুর্ঘটনা ঘটেছে।
রাঙামাটি অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ছুফি উল্লাহ জানান, রাঙামাটি কাপ্তাই হ্রদে ইঞ্জিন চালিত বোট ডুবে ৫ জন নিহত হয়েছে। অন্যদিকে কাপ্তাই কর্ণফুলী নদীতে বোট ডুবে ২ জন নিখোঁজ রয়েছে। এদের উদ্ধার অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

এদিকে সকাল সাড়ে ৯টার দিকে চট্টগ্রাম থেকে আসা পর্যটকবাহী একটি বাস রাঙামাটির সাপছড়িতে উল্টে গেলে নিহত হয় ১ জন, আহত হয় ২৭ জন। এদের রাঙামাটি জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

পিএনএস/মো: শ্যামল ইসলাম রাসেল

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech