দিনে সাধারণ, রাত হলেই ভয়ংকর রূপ!

  

পিএনএস ডেস্ক : দিনের বেলা তারা সাধারণ মানুষের মতো। কিন্তু রাত হলেই ভয়ংকর রূপ ধারণ করত। ছিনতাই, ছুরিকাঘাত থেকে শুরু করে হত্যায়ও জড়িয়ে পড়ে তিনজনের এই চক্র।

সর্বশেষ সাভারে আশুলিয়ার কাঠগড়া এলাকায় এক যুবককে গলা কেটে হত্যার পর তার মোটরসাইকেল ছিনতাই করে তারা। তবে এ ঘটনায় আর রেহাই পায়নি চক্রটি। ধরা পড়েছে র‌্যাবের হাতে।

র‌্যাব জানায়, ১৪ ফেব্রুয়ারি সকালে আশুলিয়ার কাঠগড়া পালোয়ানপাড়া এলাকার একটি বাঁশঝাড় থেকে এক যুবকের গলাকাটা মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় থানায় অজ্ঞাতনামাদের আসামি করে নিহতের বাবা শাহীন বেপারী একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। পরে ওই মামলার সূত্র ধরে প্রযুক্তির সহায়তায় রবিবার গভীর রাতে আশুলিয়ার জামগড়া ও রূপায়ণ মাঠ এলাকা থেকে ওই যুবককে হত্যার ঘটনায় জড়িত তিনজনকে গ্রেপ্তার করা হয়। নিহত পাঠাও চালকের ব্যবহৃত মোবাইল ফোন ও হত্যাকারীদের রক্তমাখা প্যান্ট উদ্ধার করা হয়।

এ ছাড়া হত্যার পর বাঁশঝাড়ের পাশে পড়ে থাকা নিহত মোটরসাইকেল চালকের পরিচয়ও শনাক্ত করেছে র‌্যাব।

সোমবার র‌্যাব-১ এর অধিনায়ক লে. কর্নেল শাফী উল্লাহ বুলবুল স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এসব বিষয় নিশ্চিত করা হয়।

র‌্যাব জানায়, নিহত ওই যুবকের নাম শামীম বেপারী বাবু (২৮)। তিনি রাজশাহী জেলার বাঘা থানাধীন চৌমুধিয়া গ্রামের মো. শাহিন বেপারীর ছেলে। নিহত বাবু রাজধানীর খিলগাঁও থানাধীন মেরাদিয়া মধ্যপাড়ায় স্ত্রীসহ বসবাস করে রাইড শেয়ারে মোটরসাইকেল চালাত।

হত্যার ঘটনায় গ্রেপ্তারকৃতরা হলো ময়মনসিংহ জেলার ফুলবাড়িয়া থানার জোড়বাড়িয়া কালাকন্দা গ্রামের মামুনুর রশিদ (২২), ভোলা জেলার বোরহানউদ্দিন থানার চরটিটিয়া গ্রামের মাহবুবুর রহমান (২০) এবং লালমনিরহাট সদর জেলার কুলাঘাট গ্রামের মোমিন মিয়া (২০)।

তারা সবাই আশুলিয়ার জামগড়া এলাকায় আলাদা বাসায় ভাড়া থাকে।

র‌্যাব-১ সিপিসি-২ শাখার অতিরিক্ত পুলিশ মোহাম্মদ সালাউদ্দিন জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের গ্রেপ্তাররা পাঠাও চালক শামীমকে গাবতলী থেকে আশুলিয়ায় কৌশলে নিয়ে এসে জবাই করে হত্যার কথা স্বীকার করেছে। এর আগেও সংঘবদ্ধ এই চক্রটি একাধিক ছিনতাই ও ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যাওয়ার ঘটনা ঘটিয়েছে। দিনের বেলা অন্য পেশায় তারা নিয়োজিত থেকে রাতের আঁধারে ছিনতাইয়ের কাজ করত।

এ ঘটনায় গ্রেপ্তারদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে বলেও জানান তিনি।

পিএনএস/জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন