প্রেমের টানে ইতালির তরুণী রায়পুরে

  

পিএনএস ডেস্ক : প্রেম মানে না কোনো ধর্ম, বর্ণ বা দেশ। সে কথা আবারও প্রমাণিত হলো। বাংলাদেশি তরুণের প্রেমের টানে নিজ দেশ ইতালি ছেড়েছেন লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে চলে এসেছেন এক তরুণী (২৩)। বেঁধেছেন সংসার।

বাংলাদেশি এই তরুণ হলেন লক্ষ্মীপুরের রায়পুর উপজেলার মো. ইকবাল হোসেন (২৭)। গতকাল বৃহস্পতিবার রাত ১২টার দিকে ইকবালের সঙ্গে ওই তরুণীর বিয়ে হয়। নাম পাল্টে রাখা হয় খাদিজা আক্তার (২৩)।

ইকবাল উপজেলার সোনাপুর ইউনিয়নের পশ্চিম সোনাপুর গ্রামের ওসমান আলী পাটওয়ারী বাড়ির আক্তার হোসেনের ছেলে। রায়পুর পৌরসভার নতুন বাজার-সংলগ্ন এলাকায় ইকবালের নানার বাড়িতে মুসলিম রীতিতে ওই বিয়ে হয়। ‘খাদিজা’ ইতালি থেকে গত বুধবার বাংলাদেশে আসেন।

ইকবালের পরিবারের সদস্যরা জানান, মাধ্যমিক পাস ইকবাল প্রায় ছয় বছর আগে ইতালিতে যান। সেখানে তিনি এই তরুণীর পরিবারের মালিকানাধীন একটি কোম্পানিতে কাজ করতেন। একপর্যায়ে তাঁদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। প্রায় দুই মাস আগে ইকবাল বাংলাদেশে আসেন। কিন্তু কাগজপত্রের কিছু সমস্যার কারণে ইকবাল ফের ইতালিতে যেতে পারছিলেন না। তবে তাঁদের মধ্যে ফোন ও ফেসবুকে যোগাযোগ সচল থাকে। এই সম্পর্কের ধারাবাহিকতায় তরুণী বাংলাদেশে আসেন।

ইকবালের বাবা আক্তার হোসেন বলেন, ‘আমরা আনন্দিত। ছেলে-পুত্রবধূর উজ্জ্বল ভবিষ্যৎ কামনা করি।’ তিনি জানান, ভাষাগত কিছু সমস্যা থাকলেও সবকিছুতেই মানিয়ে নিচ্ছেন, পরছেন বাঙালি পোশাকও। লোকজন আজ সকাল থেকে নববধূকে দেখার জন্য তাঁদের বাড়িতে ভিড় করছে।’ তিনি জানালেন, ইকবাল আজ সকালেই সস্ত্রীক কক্সবাজারে গেছেন।

সোনাপুর ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান ইউছুফ জালাল কিসমত বলেন, ‘ইতালির তরুণী রায়পুরে ছেলে ইকবালকে বিয়ে করেছেন বলে শুনেছি। গতকাল রাতেই তাঁর মা-বাবা বউকে বরণ করে নিয়েছেন।’

পিএনএস-জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন