ভৈরবে জ্বর ও সর্দি-কাশি নিয়ে হাসপাতালে ভর্তির পর তরুণীর মৃত্যু

  

পিএনএস ডেস্ক : কিশোরগঞ্জের ভৈরব উপজেলায় জ্বর ও সর্দি-কাশি নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার পাঁচ ঘণ্টা পর এক তরুণীর মৃত্যু হয়েছে। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় পৌর শহরের একটি বেসরকারি হাসপাতালে ওই তরুণীর মৃত্যু হয়। তাঁর বয়স হয়েছিল ১৮ বছর। ভৈরবের একটি গ্রামে তাঁর বাড়ি।

হাসপাতাল সূত্র জানায়, দুপুরে মেয়েটিকে তাঁর পরিবারের সদস্যরা হাসপাতালে নিয়ে আসেন। তখন মেয়েটির শরীরে জ্বর, সর্দি ও কাশি ছিল। গত ১৮ ফেব্রুয়ারি ঢাকার বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে মেয়েটিকে চিকিৎসা দেওয়া হয়। কিছুদিন আগে জহুরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে চিকিৎসা করানো হয়। শেষ পর্যন্ত ভৈরবের একটি হাসপাতালে তাঁর মৃত্যু হলো।


এদিকে করোনার উপসর্গ নিয়ে হাসপাতালে এসে মারা যাওয়ার কথা জেনে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও উপজেলা প্রশাসন কর্তৃপক্ষ ঘটনাস্থলে আসে। পরে ভৈরবের হাসপাতালটি লকডাউন ঘোষণা করে তারা। আশপাশের বসতির লোকজনের চলাচলও সীমিত করা হয়।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা বুলবুল আহমেদ বলেন, মারা যাওয়ার আগে মেয়েটির শরীরে তাপমাত্রা ছিল ১০৪ ডিগ্রি। সর্দি-কাশিও ছিল। সেই কারণে মৃত্যুটিকে সন্দেহের তালিকায় রাখতেই হচ্ছে। নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। ২৪ ঘণ্টার মধ্যে করোনা পরীক্ষার ফল পাওয়া যাবে।-প্রথম আলো

পিএনএস-জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন