পিরোজপুরে ব্যবসায়ী বাবা-ছেলেকে গলা কেটে হত্যা

  

পিএনএস ডেস্ক : পিরোজপুরের ব্যবসায়ী হেলাল উদ্দিন (৫৬) ও ইয়াছিন হাওলাদারকে (২০) বরিশালের বাকেরগঞ্জে গলা কেটে হত্যা করা হয়েছে। তারা সম্পর্কে বাবা-ছেলে।

শুক্রবার সন্ধ্যায় ইয়াছিন ও শনিবার সকালে হেলালের মরদেহ পান্ডব নদীতে ভেসে ওঠে। নিহতদের বাড়ি নাজিরপুর উপজেলার কলারদোয়ানিয়া ইউনিয়নের কলারদোয়ানিয়া গ্রামে।

নিহত হেলাল উদ্দিনের বড় ভাই বাদশা হাওলাদার জানান, এক সপ্তাহ আগে তার ভাই হেলাল ও ভাইপো ইয়াছিন ব্যবসার উদ্দেশ্যে মাছ ধরার চাঁই বিক্রি করতে বরিশালের বাকেরগঞ্জে যান। শুক্রবার (৩ জুলাই) সকালে ওই এলাকার শতরাজ বাজারে চাঁই বিক্রি করে বিকেলে স্থানীয় শিয়ালঘুনি হাটে যান।

চাঁই বিক্রি করে প্রায় দেড় লাখ টাকা নিয়ে তারা ফিরছিলো। পথে কিছু অজ্ঞাত দুর্বৃত্ত ট্রলারে থাকা একশ' চাঁই ক্রয়ের কথা বলে। দুর্বৃত্তরা চাঁইগুলো বাকেরগঞ্জের চরলহ্মীপাশা গ্রামে পৌঁছে দেয়ার কথা বলে সেখানে নিয়ে যায়। পরে সেখানে নিয়ে বাবা-ছেলেকে গলা কেটে হত্যা করে তাদের কাছে থাকা দেড় লাখ টাকা ও চাঁই বহন করা ‘মায়ের পরশ’ নামের একটি ট্রলার ছিনতাই করে নিয়ে যায়।

এ সময় তাদের স্থানীয় নদীতে ফেলে দেয় দুর্বৃত্তরা। পরে শুক্রবার সন্ধ্যায় ছেলে ইয়াছিন ও শনিবার সকালে বাবা হেলাল উদ্দিনের লাশ স্থানীয় পান্ডব নদীতে ভাসতে দেখে থানা পুলিশকে খবর দেয়া হয়। পুলিশ পৃথকভাবে তাদের লাশ উদ্ধার করেন।

বাকেরগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ আবুল কালাম জানান, তাদের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে তাদের ট্রলার ও সাথে থাকা টাকা ছিনতাই করতে কোন ডাকাতদল বা দুর্বৃত্ত চক্র এ ঘটনা ঘটিয়েছে।

পিএনএস/জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন