কোরবানির মাংস বিতরণকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে একজনের মৃত্যু

  

পিএনএস ডেস্ক: কিশোরগঞ্জের ভৈরবে কোরবানির মাংস বিতরণকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে শাহআলম (৩৫) নামে এক ব্যক্তির মৃত্যু ও সাতজন আহত হয়েছেন।

শনিবার (০১ আগস্ট) বিকেলে উপজেলার কান্দিপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এছাড়া এ ঘটনায় বেশ কয়েকটি বাড়িঘর ভাঙচুর করা হয়েছে।

নিহত শাহআলম ওই গ্রামের মৃত নুরুল ইসলামের ছেলে এবং কুলিয়ারচর বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের লাইনম্যান হিসেবে কর্মরত ছিলেন।

পুলিশ জানায়, শনিবার ঈদের দিন বিকেলে উপজেলার কান্দিপাড়া গ্রামে জানমাহমুদের বাড়িতে কোরবানির মাংস বিতরণকে কেন্দ্র করে বাওরার বাড়ির লোকজনের সঙ্গে জানমাহমুদের বাড়ির লোকজনের কথাকাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। সংঘর্ষের এক পর্যায়ে শাহআলমের মাথায় কাঠের লাঠি দিয়ে আঘাত করলে তিনি অজ্ঞান হয়ে মাটিতে পড়ে যান।

পরে তাকে উদ্ধার করে স্থানীয় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠায়। রাত ২টার দিকে তাকে ঢাকায় নিউরোলজি সায়েন্স হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

ভৈরব থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহিন জানান, কোরবানির মাংস বিতরণকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের সংঘর্ষে শাহআলম নামে একজন মারা গেছেন। মরদেহের সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি করে ময়নাতদন্তের জন্য রোববার দুপুরে কিশোরগঞ্জ ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

এ ব্যাপারে মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে জানান তিনি।

পিএনএস/এএ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন