ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড কেড়ে নিল মাথা গোঁজার ঠাঁই

  

পিএনএস ডেস্ক : শেরপুরের নকলা উপজেলাধীন পাঠাকাটা ইউনিয়নের পিপড়ী গ্রামে বৃহস্পতিবার (১৫ অক্টোবর) বিকেলে ছামিদুল ইসলাম নামে এক অসহায় দিন মজুরের বসত ঘরে আগুন লেগে ভস্মিভূত হয়ে গেছে। ভয়াবহ এ অগ্নিকাণ্ডে এক প্রতিবন্ধী ও এক বৃদ্ধাসহ ৪ সদস্যবিশিষ্ট এ পরিবারের মাথা গোঁজার ঠাঁই আর রইলো না, রইলো না তাদের খাবারের ব্যবস্থাও।

জানা যায়, এ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় দরিদ্র পরিবারের ঘরের যাবতীয় মালামাল পুড়ে যায়। পুড়ে যাওয়া মালামালগুলোর মধ্যে রয়েছে অতি প্রয়োজনীয় বিভিন্ন দলিলসহ উপজেলা সমাজসেবা অফিস কর্তৃক সরবরাহ করা সরকারি সহায়তা পাওয়ার প্রতিবন্ধী কার্ড, বয়স্ক ভাতার কার্ড ও ঢাকার এক পোশাক কম্পানিতে কর্মরত ২ নারী কর্মীর এক মাসের বেতন-ভাতা, চাল, ডাল, ধান, ৩টি খাট, লেপ-তোষকসহ নিত্য প্রয়োজনীয় সামগ্রী। এই ঘটনায় প্রায় সাড়ে ৩ লাখ টাকার মালামাল ভস্মিভূত হয়ে যায় বলে জানায় ক্ষতিগ্রস্ত এই পরিবারটি।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, আগুন লাগার পর পরই নকলা বিদ্যুৎ অফিসে ফোন দিলে, বিদ্যুতের সংযোগ বন্ধ করে দেয় বিদ্যুত কর্তৃপক্ষ। স্থানীয়রা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে না পারায় আগুনে সবকিছু ভস্মিভূত হয়ে যায়।

ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারের প্রধান ছামিদুল ইসলাম জানান, বিদ্যুতের মিটারের ত্রুটির কারণেই হয়তবা অগ্নিকাণ্ডের ঘটনাটি ঘটেছে।

ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন নকলা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জাহিদুর রহমান, এ সময় তিনি অগ্নিকাণ্ডের ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারকে নগদ ১০ হাজার টাকা ও অত্র ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ফয়েজ মিল্লাত ব্যক্তিগতভাবে ৩ হাজার টাকা সহায়তা দিয়ে সহায়তা করেন। সেই সাথে পরবর্তী সময়ে এই পরিবারের পাশে সার্বিক সহযোগিতা প্রদান করা হবে বলে জানিয়েছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জাহিদুর রহমান।

পিএনএস/জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন