চাঁদপুরে ইলিশ ধরায় ১০ জেলের দণ্ড

  

পিএনএস ডেস্ক : চাঁদপুরে সরকারি নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে নদীতে ইলিশ ধরার দায়ে ১০ জেলেকে বিভিন্ন মেয়াদে সাজা ও অর্থদণ্ড দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন চাঁদপুর জেলা মৎস্য কর্মকর্তা আসাদুল বাকী।

বৃহস্পতিবার রাত থেকে শুরু করে শুক্রবার ভোর পর্যন্ত পদ্মা-মেঘনা নদীর বিভিন্ন স্থানে এই অভিযান চালানো হয়।

অভিযানকালে মতলব উত্তর উপজেলা থেকে ৮ এবং হাইমচর উপজেলা থেকে ২ জেলেকে ইলিশ ধরার সময় আটক করা হয়। এ সময় তাদের কাছ থেকে ৯৩ কিলোমিটার কারেন্ট জাল জব্দ করে আগুনে পুড়িয়ে দেয়া হয়। পরে তাদেরকে মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে সাজা দেওয়া হয়।

দণ্ডপ্রাপ্ত জেলেরা হলেন- মতলব উত্তর উপজেলায় মেঘনা নদীতে মাছ ধরতে যাওয়া মুন্সিগঞ্জ জেলার সদর উপজেলার চর আবদুল্লাহপুর গ্রামের আলী আজগর, মাইনউদ্দিন, দেলোয়ার হোসেন, আক্তার হোসেন, স্বপন হোসেন, আরিফ ও রুবেল। এদের প্রত্যেককে ১ মাস করে বিনাশ্রম কারাদণ্ডাদেশ দেওয়া হয়। একই এলাকার জেলে মেহেদির বয়স কম হওয়ায় তাকে ৫০০ টাকা অর্থদণ্ড প্রদান করে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

এ ছাড়া হাইমচর উপজেলা থেকে আটককৃত জেলে মো. সাইফুল ইসলাম ও মানিক লস্কর প্রত্যেককে ২ বছর করে বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করা হয়েছে।

জেলা মৎস্য কর্মকর্তা আসাদুল বাকী জানান, মা ইলিশ রক্ষা অভিযানে ১০টি টিম দিন-রাত ২৪ ঘণ্টা চাঁদপুরের পদ্মা-মেঘনা নদীর ৬০ কিলোমিটার এলাকা পাহারা দিচ্ছে। কোনো অবস্থাতেই যেন জেলেরা নদীতে নামতে না পারে সে ব্যাপারে টাস্কফোর্সের সদস্যরা তৎপর রয়েছেন।

উল্লেখ্য, গত ১৪ অক্টোবর থেকে আগামী ৪ নভেম্বর পর্যন্ত ২২ দিন মা ইলিশ সংরক্ষণে মাছ আহরণ নিষিদ্ধ ঘোষণা করেছে সরকার।

পিএনএস/এসআইআর


 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন