সাতক্ষীরায় চারজনকে গলা কেটে হত্যা; আরও তিনজন গ্রেফতার

  


পিএনএস ডেস্ক: সাতক্ষীরার কলারোয়ায় চাঞ্চল্যকর চার জনকে (স্বামী-স্ত্রী ও দুই সন্তান) গলা কেটে হত্যা মামলায় আরো তিন জনকে গ্রেফতার করেছে সিআইডি।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় তাদেরকে গ্রেফতার করা হয়। এনিয়ে নৃশংস এই হত্যা মামলায় নিহত শাহিনুর রহমানের ভাই রায়হানুল ইসলামসহ চার জনকে গ্রেফতার করা হলো।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন, কলারোয়া উপজেলার খলসি গ্রামের আব্দুস সামাদের ছেলে আব্দুর রাজ্জাক (২৮), আবুল কাশেমের ছেলে আব্দুল মালেক (৩৫) ও একই গ্রামের আসাদুল ইসলাম (২৭)। তাদের মধ্যে রাজ্জাক ও মালেক নিহত শাহিনুরের নিকট প্রতিবেশী এবং আসাদুল ইসলাম নিহত শাহিনুরের হ্যাচারির কর্মচারী বলে জানা গেছে।

সাতক্ষীরা সিআইডি’র এসপি আনিছুর রহমান গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

উল্লেখ্য, গত ১৫ অক্টোবর ভোর রাতে কলারোয়া উপজেলার হেলাতলা ইউনিয়নের খলিসা গ্রামের শাহাজান আলীর ছেলে মৎস্য হ্যাচারি মালিক শাহিনুর, তার স্ত্রী সাবিনা খাতুন, ছেলে সিয়াম হোসেন মাহী ও মেয়ে তাসনিম সুলতানাকে গলা কেটে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। এ সময় নারকীয় এই হত্যাকাণ্ডের মধ্যে ঘাতকদের হাত থেকে বেঁচে যায় তাদের চার মাসের শিশু কন্যা মারিয়া সুলতানা। যার দায়িত্বভার নিয়েছেন সাতক্ষীরার জেলা প্রশাসক এস.এম মোস্তফা কামাল। তিনি ওই শিশুর চিকিৎসা ও বেড়ে ওঠার সব ব্যয়ভার বহন করবেন বলে ঘোষণা দিয়েছেন। শিশুটি বর্তমানে হেলাতলা ইউনিয়ন পরিষদের সংরক্ষিত মহিলা ইউপি সদস্য নাসিমা খাতুনের হেফাজতে রয়েছে।

পিএনএস/আনোয়ার

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন