নেত্রকোনায় ৫ সন্তানের জননীকে ধর্ষণ

  

পিএনএস ডেস্ক:নেত্রকোনার মোহনগঞ্জে পাঁচ সন্তানের জননীকে (৪৫) ধর্ষণের অভিযোগে আব্দুল্লাহ আল সোহান (২২) নামে এক যুবকের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের হয়েছে।

শনিবার (২৪ অক্টোবর) ভোরে উপজেলার দেওথান গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। রোববার (২৫ অক্টোবর) দুপুরে এ ঘটনায় ওই নারী নিজেই থানায় মামলা করেছেন।

এ ঘটনায় অভিযুক্ত আব্দুল্লাহ আল সোহান (২২) অন্য একটি মামলায় গ্রেপ্তার থাকায় পরে ওই ধর্ষণ মামলায়ও তাকে গ্রেপ্তার দেখিয়ে আদালতে পাঠায় পুলিশ। সোহান একই গ্রামের নূর আহাম্মদের ছেলে।

স্থানীয় মো. আবু সাইদ ওরফে হাজি মাসুদ জানান, শনিবার ফজরের নামায শেষে পাশের বাড়িতে যাওয়ার সময় পথ আটকে গলায় ছুরি ঠেকিয়ে ওই নারীকে ধর্ষণ করে সোহান। ঘটনায় লজ্জায় ভয়ে দুমড়ে মুচড়ে যান ওই নারী। পরে পরিবারের সাহসে মামলা করেন তিনি। মামলা করার পর অভিযুক্তের পরিবার থেকে তাদেরকে হুমকি প্রদর্শন করা হচ্ছে। একপ্রকার গৃহবন্ধী অবস্থায় আছেন বলে জানান তিনি।

স্থানীয়রা জানায়, অভিযুক্ত আব্দুল্লাহ আল সোহানের নামে মাদক, চিনতাইসহ আরো অনেক মামলা রয়েছে। কিছুদিন আগে এক যুবলীগ নেতাকে রাতে পথ আটকে রামদা দিয়ে কুপিয়ে আহত করে। এদিন শহর থেকে বাড়ি ফেরা এক ধান ব্যবসায়ীর কাছ থেকে এক লাখ টাকাও চিনিয়ে নেয় সোহান। এসব ঘটনায় মামলা হলেও এতদিন পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করেনি।

মোহনগঞ্জ থানার ডিউটি অফিসার এসআই হারুনুর রশিদ জানান, ইতিমধ্যেই সোহান অন্য একটি মামলায় গ্রেপ্তার থাকায় এই মামলায় তাকে শোন এরেস্ট দেখানো হয়েছে। আর ভিকটিমকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য নেত্রকোনা পাঠানো হয়েছে।

পিএনএস/এএ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন