টাকার লোভে মা-বাবাকে মেরে হাসপাতালে পাঠানো সেই মেয়ে কারাগারে

  

পিএনএস ডেস্ক : বরগুনায় পেনশনের টাকার জন্য মা-বাবাকে মেরে রক্তাক্ত করে হাসপাতালে পাঠানোর ঘটনায় মেয়ে সীমা আক্তারকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। পরে আদালতের মাধ্যমে তাকে আজ শনিবার জেলহাজতে পাঠানো হয়।

এর আগে, গত বুধবার রাতে বাবার পেনশনের এক লাখ টাকার দাবিতে স্বামী ও স্বজনদের নিয়ে মা-বাবাকে মেরে রক্তাক্ত করেন মেয়ে সীমা আক্তার। এ ঘটনায় গতকাল শুক্রবার রাতে বরগুনা সদর থানায় একটি মামলা করেন গ্রেপ্তার সীমা আক্তারের মা ও ভুক্তভোগী জাহানারা বেগম। মামলায় সীমা আক্তার ও তার স্বামী হাফিজুর রহমানসহ পাঁচজনকে আসামি করা হয়েছে। পরে গতকাল রাতেই ঢাকা যাওয়ার পথে একটি যাত্রীবাহী বাসে অভিযান চালিয়ে সীমাকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

এ বিষয়ে বরগুনা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তারিকুল ইসলাম বলেন, ‘টাকার জন্য মা-বাবাকে মারধরের অভিযোগে বরগুনা সদর থানায় মামলা করেছেন ভুক্তভোগী জাহানারা বেগম। মামলার প্রধান আসামি করা হয়েছে তার মেয়ে সীমা আক্তারকে। গ্রেপ্তারের পর সীমাকে গ্রেপ্তার করে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।’

পিএনএস/জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন