ফেনীতে অপহরণের পর কলেজছাত্রকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ

  

পিএনএস ডেস্ক : ফেনীতে অপহরণের পর সামিউল আলম সামি (১৯) নামে এক কলেজছাত্রকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে।

শুক্রবার রাতে পৌর শহরের বিসিক শিল্প নগরী সেন্ট্রাল হসপিটাল সংলগ্ন স্থানে তাকে পিটিয়ে আহত করে দুর্বৃত্তরা। পরদিন শনিবার রাতে ঢাকার কাকরাইলের ইসলামী ব্যাংক সেন্ট্রাল হসপিটালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

পুলিশ ও নিহতের পরিবার জানায়, শুক্রবার সন্ধ্যায় দাগনভূঞা সরকারি ইকবাল মেমরিয়াল ডিগ্রি কলেজের দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্র ও উপজেলার হীরাপুর গ্রামের মুজিব মুন্সী বাড়ির আফ্রিকাপ্রবাসী মো. ইলিয়াছের ছেলে সামিউল আলম সামিকে অজ্ঞাত দুর্বৃত্তরা গাড়ীযোগে ফেনীর বিসিকে নিয়ে যায়। সেখানে দুর্বৃত্তরা সামিকে এলোপাথারি মারধর করে ফেলে রেখে যায়। খবর পেয়ে মহিপাল হাইওয়ে পুলিশের একটি দল গুরুতর আহতবস্থায় তাকে উদ্ধার করে ফেনী জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা পাঠান। পরে শনিবার রাতে চিকিসাধীন অবস্থায় ঢাকায় তার মৃত্যু হয়। খবর পেয়ে পুলিশ হাসপাতাল থেকে নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠায়।

নিহতের খালাতো ভাই দাগনভূঞা উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ আলমগীর জানান, ওইদিন সন্ধ্যায় প্রেমঘটিত কারণে সামিকে দাগনভূঞা পৌর শহরের আমান উল্লাপুরের ছকিনা ম্যানশনের সামনে থেকে অপহরণ করে নিয়ে যায় অজ্ঞাত দুর্বৃত্তরা।

ফেনী মডেল থানার ওসি মো. আলমগীর হোসেন বলেন, এঘটনায় থানায় মামলা দায়েরের প্রক্রিয়া চলছে।

পিএনএস/এসআইআর

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন