শেরপুরে মাস্ক না পরায় ১৮জনকে জরিমানা

  

পিএনএস, শেরপুর (বগুড়া) প্রতিনিধি : বগুড়ার শেরপুরে সরকারি নির্দেশনা উপেক্ষা করে মাস্ক না পরায় ১৮জনকে জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। গত দুইদিন পৌরশহরসহ উপজেলার একাধিক গুরুত্বপূর্ণ এলাকায় এই ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. লিয়াকত আলী সেখ। সেইসঙ্গে জনসাধারণকে প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাস সম্পর্কে সচেতন করতে মাইকযোগে প্রচার-প্রচারণা চালানো হয়। স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলাসহ ঘর থেকে বের হলে অবশ্যই মাস্ক পরতে আহবান জানান তিনি। বিশেষ করে বাস-ট্রাক, সিএনজি চালিত অটোরিকসা শ্রমিক-যাত্রীদের মাস্ক পরতে উদ্বুদ্ধ করেন।

ভ্রাম্যমাণ আদালত সূত্রে জানা যায়, গত বৃহস্পতিবার (০৩ডিসেম্বর) বিকেল থেকে সন্ধ্যারাত পর্যন্ত শেরপুর পৌরশহরের সাব-রেজিষ্ট্রি বাজার, খেজুরতলা বাস টার্মিনাল, শেরুয়া বটতলা বাজার, ব্র্যাক বটতলা বাজার এলাকায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানে স্বাস্থ্যবিধি অমান্য করে মাস্ক ব্যবহার না করায় ছয়জনকে এক হাজার একশত টাকা জরিমানা করা হয়। এছাড়া আগেরদিন গত বুধবার (০২ডিসেম্বর) শহরের ধুনটমোড়, সকাল বাজার, বাসষ্ট্যান্ড, রনবীরবালা এলাকায় পরিচালিত ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানে মাস্ক না পরায় বারো জনকে এক হাজার পাঁচশত পঞ্চাশ টাকা জরিমানা করেন ওই নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট।

এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. লিয়াকত আলী সেখ বলেন, সরকার ঘরের বাইরে মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক করলেও নানা অজুহাতে অনেকে মাস্ক ব্যবহার করছেন না। করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ এড়াতে আমাদের প্রত্যেকের মাস্ক পরা উচিত। তাই ঘরের বাইরে বের হলেই সবার মাস্ক পরা নিশ্চিত করতে হবে। এজন্যই গণসচেতনতা সৃষ্টির পাশাপাশি ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হচ্ছে। জনস্বার্থে এই অভিযান অব্যাহত থাকবে বলেও ঘোষণা দেন তিনি।

পিএনএস/এসআইআর

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন