গরম তেল ঢেলে স্বামীকে হত্যা : স্ত্রীর মৃত্যুদণ্ড

  

পিএনএস ডেস্ক : নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে পারিবারিক কলহের জের ধরে গরম তেল ঢেলে দৃষ্টি প্রতিবন্ধী স্বামীকে হত্যার দায়ে স্ত্রীর মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই সময় হত্যাকাণ্ডে সহায়তার অভিযোগে নিহতের শ্বশুর-শাশুড়িকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের আদেশ দেওয়া হয়েছে। মঙ্গরবার বিকেলে জেলা ও দায়রা জজ সালেহ উদ্দিন আহমদ এ আদেশ দেন।

আদালত সূত্রে জানা যায়, পারিবারিক কলহের জের ধরে ২০১৮ সালের ৩ মে দৃষ্টি প্রতিবন্ধী শহিদ উল্যার গায়ে গরম তেল ঢেলে দিয়ে পালিয়ে যায় স্ত্রী বিবি কুলসুম। পরে তার চিৎকারে আশপাশের লোকজন শহিদ উল্যাহকে প্রথমে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখান থেকে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় নেওয়া হয়। চিকিৎসাধীন অবস্থায় ১২ মে তিনি মারা যান। পরবর্তীতে এ ঘটনায় নিহতের ভগ্নিপতি সাহেব উল্যাহ নিহতের স্ত্রী বিবি কুলসুম, শ্বশুর আবুল হোসেন ও শাশুড়ি লিলি বেগমকে আসামি করে বেগমগঞ্জ থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

বিজ্ঞ আদালত দীর্ঘ শুনানি শেষে আজ মামলার প্রধান আসামি নিহত শহিদ উল্যার স্ত্রীকে মৃত্যুদণ্ড এবং অপর দুই আসামিকে (শ্বশুর-শাশুড়ি) যাবজ্জীবন কারাদণ্ড প্রদান করেন।

মামলায় রাষ্ট্র পক্ষে আইনজীবী ছিলেন পাবলিক প্রসিকিউটর গুলজার আহমেদ জুয়েল এবং আসামি পক্ষে মামলা পরিচালনা করেন মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম, আবদুর রহমান ও স্বপন চন্দ্র পাল।

রাষ্ট্র পক্ষের আইনজীবী গুলজার আহমেদ জুয়েল জানান, রায় দেওয়ার সময় আদালতে আসামি আবুল হোসেন উপস্থিত ছিলেন। তবে মামলার প্রধান আসামি নিহতের স্ত্রী বিবি কুলসুম ও শাশুড়ি লিলি বেগম পলাতক ছিল।

পিএনএস/জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন