মানসিক ভারসাম্যহীন যুবকের ছুরিকাঘাতে প্রাণ গেল দুজনের

  

পিএনএস ডেস্ক: নরসিংদীতে মানসিক ভারসাম্যহীন এক যুবক পাঁচজনকে কুপিয়েছেন যার মধ্যে দুইজন মারা গেছেন। মানসিক ভারসাম্যহীন ওই যুবকের নাম মো. ইউনুস আলী। তিনি একই গ্রামে প্রাবাসী মো. মান্নান মিয়ার ছেলে।

বুধবার (৭ এপ্রিল) সকালে সদর উপজেলার নজরপুর ইউনিয়নের ছগরিয়াপাড়া গ্রামে এই ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় আহত বাকি তিনজন নরসিংদী সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। ছুরিকাঘাতে নিহতরা হলেন গ্রামের আবুল ফজলের ছেলে মো. ফরহাদ মিয়া (৫০) ও দেওয়ান আলীর ছেলে আলী আকবর (৫৬)।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ইউনুস আলী সকালে তার মায়ের সঙ্গে ঝগড়াঝাটি করে একটি বড় দা হাতে বাড়ি থেকে বেরিয়ে যান। এরপর পথে যাকে সামনে পেয়েছেন তাকেই কুপিয়ে জখম করেছেন। প্রথমে মামাতো ভাই আলামিনকে এবং এরপর ফরহাদ মিয়া, আলী আকবর, সেন্টু মিয়াসহ একে একে আরও চার ব্যক্তিকে কুপিয়ে জখম করেন তিনি। আহতদের হাসপাতালে নিয়ে গেলে দুজনকে মৃত ঘোষণা করে কর্তব্যরত চিকিৎসক। এ ঘটনার পর স্থানীয়রা ইউনুসকে বেধে মারধর করে এবং পুলিশে সোপর্দ করে।

স্থানীয়রা কয়েকজন জানান, ইউনুস কারও সাথে বিশেষ কথা বলতেন না। তার কিছুটা মানসিক সমস্যা ছিল। এই কারণে তিনি বিদেশ যাওয়ার চেষ্টা করেও ব্যর্থ হয়েছেন। এরপর থেকে তিনি হতাশায় ভুগছিলেন।

নরসিংদী মডেল থানা পুলিশের পক্ষ থেজে জানানো হয়, আটককৃত ইউনুস আলীকে নরসিংদী সরর হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। আর নিহতদের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

পিএনএস/এএ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন