সৌন্দর্যচর্চায় গোলাপ জল

  



পিএনএস ডেস্ক : যুগে যুগে সৌন্দর্যচর্চায় প্রসাধনী ব্যবহার করে আসছেন নারীরা। আর সৌন্দর্যচর্চায় এই গোলাপ জল ব্যবহৃত হয়ে আসছে সেই প্রচীনকাল থেকেই।
আসলে গোলাপ জলের এমন কিছু গুণ আছে যা ত্বককে উজ্জ্বল করার পাশাপাশি সার্বিকভাবে ত্বকের পরিচর্যায় দারুণ কাজ দেয়। তাই তো সেই আদিকাল থেকে প্রজন্মের পর প্রজন্ম ব্যবহার করে চলেছে এই উপাদানটি।
বোল্ডস্কাইতে প্রকাশিত সৌন্দর্যচর্চায় গোলাপ জলের তেমন কিছু ব্যবহার দেওয়া হলো—
টোনিং এর জন্য কাজে আসে
ত্বককে ভালো রাখতে টোনিং খুব দরকারি। তাই আজই বাজার চলিতি টোনার কেনা বন্ধ করে গোলাপ জল দিয়ে টোনিং শুরু করুন। দেখবেন ভালো ফল পাবেন।
ফেসপ্যাক হিসাবে ব্যবহার করতে পারেন
মুলতানি মাটির সঙ্গে সামান্য গোলাপ জল মিশিয়ে একটা প্যাক বানিয়ে ফেলুন। সেই প্যাক নিয়মিত মুখে লাগালে ত্বকে তেলের ভারসাম্য ঠিক থাকে। ফলে স্কিন তার হারানো উজ্জ্বলতা ফিরে পায়।
মেকআপের পর
ত্বককে চকচকে দেখাতে মেকআপের পর অনেকেই বাজার চলতি নানা ধরনের স্প্রে ব্যবহার করে থাকেন। কিন্তু আপনাদের কি জানা আছে যে গোলাপ জল যদি মেকআপের পর ব্যবহার করা যায় তাহলে অনেক ভালো ফল পাওয়া যায়। এখন থেকে মেকআপ শেষ হওয়ার পর সামান্য গোলাপ জল স্প্রে করে দিন মুখে। এবার শুকতে দিন। তারপর দেখবেন ত্বক কেমন চকচকে হয়ে যায়।
ত্বকের ছিদ্র ছোট করতে
ফ্রিজে রাখা গোলাপ জলে একটা তুলো ডুবিয়ে সামান্য গোলাপ জল ত্বকের ছিদ্রগুলিতে লাগিয়ে দিন। দেখবেন অল্প দিনেই কেমন কমতে শুরু করে দিয়েছে সেগুলো। মুখ পরিষ্কার করার পরে গোলাপ জল লাগাবেন, আগে নয় কিন্তু!
ব্রণের সমস্যা কমায়
এই ধরনের সমস্যা কমাতে ঠাণ্ডা গোলাপ জল দারুণ কাজে দেয়। তাই ব্রণ হলেই গোলাপ জল লাগান। দেখবেন অনেক আরাম পাবেন।
ত্বককে আরাম দিতে
ওয়েক্সিং-এর পরপর ত্বকে খুব জ্বলন হয়, তাই না? এই জ্বালাভাব কমাতে গোলাপ জল দারুণ কাজে দেয়। এবার থেকে ওয়েক্সিং-এর পর সঙ্গে সঙ্গে ত্বকে একটু গোলাপ জল লাগিয়ে দিন, দেখবেন কেমন ম্যাজিকের মতো জ্বালা ভাব কমতে শুরু করে।
ত্বককে আদ্র রাখে
ত্বক খুব শুষ্ক হয়ে যাচ্ছে? চিন্তা নেই! আজ থেকেই ব্যবহার শুরু করুন গোলাপ জল। গোলাপ জল ত্বককে আদ্র রাখতে দারুণ কাজে দেয়। যাদের খুব তৈলাক্ত ত্বক তারাও ত্বকের আদ্রতা ধরে রাখতে নিশ্চিন্তে গোলাপ জল ব্যবহার করতে পারেন।

পিএনএস/হাফিজুল ইসলাম

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech