ঈদের বাহারি সেমাইের রেসিপি

  

পিএনএস ডেস্ক : ঈদে সেমাই থাকবে না, তা কি হয়? মিষ্টি সেমাই আমাদের সব বয়সীদের কাছে খুবই পছন্দের। আমরা ঈদটা শুরুই করি মায়ের হাতের একবাটি সেমাই দিয়ে। আজ সেমাইয়ের ভিন্ন কিছু রেসিপি দেখে নেবো।

লাচ্ছা সেমাইয়ের লাড্ডু
যাদের মিষ্টি পছন্দ, তাদের জন্য সেমাই ও লাড্ডু দুটোই খুব প্রিয় নাম। এই দুটি একসঙ্গে মিলে বানিয়ে নিন সেমাইয়ের লাড্ডু।

যা যা লাগবে
লাচ্ছা সেমাই ভাজা এক প্যাকেট, নারকেল কোরানো দুই কাপ, চিনি পরিমাণমতো, গুঁড়ো দুধ আধা কাপ, বাদাম, পেস্তা, কিসমিস আধা কাপ, এলাচ-দারুচিনি ৩-৪টি, ঘি দুই টেবিল চামচ।

কীভাবে বানাবেন
প্রথমে সেমাই গুঁড়ো করে অল্প আঁচে ভাজুন। সঙ্গে সামান্য জর্দার রং দিন। মচমচে হলে চুলা বন্ধ করে দিন। একটি প্যানে নারকেলগুলো ঘি দিয়ে ভেজে নিন। এতে আস্তে আস্তে দারুচিনি, এলাচ দিন। এরপর চিনি দিয়ে দিয়ে ভালো করে নাড়ুন। একটু আঠালো হলে গুঁড়ো দুধ দিন। বাদাম, কিসমিস দিয়ে আবার নাড়ুন। খেয়াল করবেন প্যানের সঙ্গে যখন আর সেমাই লেগে থাকবে তখন নামিয়েই লাড্ডু বানিয়ে ফেলুন।

ফ্রুট সেমাই
সুস্বাদু ফল, সঙ্গে সেমাই। শুনলেই জিভে পানি এসে যায়। সেটা চাইলে এই ঈদেই করে ফেলতে পারেন।

যা যা লাগবে
দুধ দেড় লিটার, চিকন সেমাই এক প্যাকেট, চিনি এক কাপ, পাকা আম কিউব করে কাটা এক কাপ, লাল আঙুর ৫-৭টি, আপেল কুচি আধা কাপ, বেদানা দুই টেবিল চামচ

বানাবেন কীভাবে
প্রথমে দুধ জ্বাল দিয়ে সামান্য ঘন করে নিন। ফোটানো দুধে সেমাই দিয়ে নাড়তে থাকুন। এবার জ্বাল কমিয়ে চিনি দিয়ে নাড়ুন। সেমাই হয়ে গেলে পরিবেশন বাটিতে ঢালুন। ঠান্ডা হলে ফ্রিজে সাত থেকে আট ঘণ্টা রাখুন। পরিবেশনের আগে ফল মিশিয়ে পরিবেশন করুন।

পিএনএস/এএ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech