সোনালী ধান ঘরে তুলতে পেরে খুশি বুড়ী তিস্তা পাড়ারের মানুষ

  02-06-2021 07:38PM

পিএনএস, ডিমলা (নীলফামারী) প্রতিনিধি : কৃষি প্রধান দেশে কৃষকই হচ্ছে আসল চালিকাশক্তি।তাদের শান্তি তো এদেশের শান্তি। সেই শান্তি সুখের হাসি এখন বৃড়ী তিস্তা পাড়ের কৃষকের ঘরে ঘরে।

নীলফামারীর ডিমলা উপজেলা ছোট পুল,রামডাঙ্গা,কেয়ার বাজার,পাশ্ববর্তী জলঢাকা উপজেলার গোলনা ও খারিজা গোলনার কৃষক মনির,জহুরুল ইসলাম, দবির উদ্দিন, সোহেল কৃষাণী ছাবিয়া খাতুন, লক্ষি রাণী জানান, এবারে বোর মৌসুমে এই এলাকার শহস্রধিক কৃষক কিষাণী সোনালী ধান, সোনালী আঁশ পাট,ভূট্রা,বাদাম,পেঁয়াজ, রশুন, মরিচ সহ বেশ কিছু রবিশস্যর ফসল ফলিয়ে এবং তা বাজারযাত করে আমরা অত্যন্ত লাভবান হয়েছি।

এই লাভবানের ব্যাপারে কি কারণ থাকতে পারে? উত্তরে তারা বলেন, ওই যে দেখতে পাচ্ছেন বুড়ী তিস্তা ব্যারেজটি, এটি আমাদের হাসি কান্নার উৎস। গেট যদি খোলা থাকে তাহলে আমাদের কোন চিন্তা থাকেনা।আর যদি এটি বন্ধ থাকে তাহলে অনাহারে অর্ধাহারে পরিবার পরিজন নিয়ে দিন কাটাত হয়।গেট বন্ধ থাকার কারনে এমনও দিন গেছে ঢেঁপের গুরা ছিল নিত্য দিনের সাথী। নৌকায়,কলার গাছের ভেলা বানিয়ে সকাল থেকে বিকাল পর্যন্ত পাকা ঢেঁপ তুলে তা এনে জীবিকা নির্বাহ করেছি।দীর্ঘদিন ধরে ব্যারেজের জল কপাট গুলো খোলা থাকার কারণে এখন আমাদের প্রতিটি কৃষক কৃষাণীদের ঘরে ঘরে সন্তানদের হাতে বই তুলে দিতে পারছি, আবাদের ফলে নিজে খাচ্ছি একটু হলেও আমাদের দেশ বাংলাদেশ সরকারের খাদ্য চাহিদা পুরন করতে পারছি।

পিএনএস/এসআইআর


 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন